পুলিশকে দিয়ে গণনায় কারচুপি করে জয় তৃণমূলের! ঝাড়গ্রামের সভা থেকে দাবি শুভেন্দুর

ছত্রধরকে আক্রমণ শুভেন্দুর

পুলিশকে দিয়ে গণনায় কারচুপি করে জেলা পরিষদ জিতেছিল তৃণমূল। ঝাড়গ্রামের জামদা সার্কাস ময়দানের সভা থেকে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। এদিন স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে রাজ্যের শাসক দলকে আক্রমণ করেন সদ্য প্রাক্তন তৃণমূল নেতা। বাদ গেলেন না যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জি। এদিনও নাম না করে তোলাবাজ বলে কটাক্ষ করেন।

দুর্নীতি প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে শুভেন্দুর অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার নাম পরিবর্তন করেছে রাজ্য সরকার। এমন কী কেন্দ্রের পাঠানো টাকা থেকে সবুজ সাথীতে সাইকেল বিতরণ করা হয়েছে বলেও দাবি করেছেন।    

পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ জেলা নেতৃত্ব লাগামহীন দুর্নীতিতে ডুবে রয়েছে। তৃণমূলে থাকাকালীন মুখ্যমন্ত্রীকে তিনি সামাজিক অডিট করার কথা বলেছিলেন বলেও দাবি করেন শুভেন্দু। সিভিক পুলিশের মত চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রেও দুর্নীতি হয়েছে বলে তিনি রাজ্যের শাসক দলকে আক্রমণ করেন। মন্ডল কমিশনের লড়াইয়ের ফলে কুর্মি সমাজকে বঞ্চিত করে OBC-B করা হয়েছে বলে অভিযোগ সদ্য প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী।

তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতোকেও একহাত নেন শুভেন্দু। তাঁর কটাক্ষ ‘এখানকার যে তৃণমূলের মুখ সে ১০ বছর জেল খেটেছে’। জঙ্গলমহলকে অশান্ত করার পেছনে জনসাধারণের কমিটির হাত ছিল বলেও তোপ দাগেন শুভেন্দু। অভিযোগের পাশাপাশি শুভেন্দুর দাবি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারি বাজপেয়ী সাঁওতালি ভাষাকে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন।

Comments
Loading...