‘বহিরাগত’ দুষ্কৃতীদের নন্দীগ্রামে জড়ো করছেন শুভেন্দু, কমিশনে গুরুতর অভিযোগ তৃণমূলের

সংশ্লিষ্ট বাড়ির এক মালিকের দাবি, কোনও বহিরাগত নেই তাঁদের এলাকায়।

নন্দীগ্রামের একের পর এক বাড়িতে ‘বহিরাগত’ দুষ্কৃতীদের এনে জড়ো করছেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। সোমবার নির্বাচন কমিশনের কাছে এই মর্মে অভিযোগ জানাল তৃণমূল।
নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকার ৪ টি বাড়িতে বাইরে থেকে আসা দুষ্কৃতীদের আশ্রয় দেওয়া হয়েছে। তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়ান অভিযোগ পত্রে দাবি করেছেন, বহিরাগতরা বেশ কিছুদিন ধরেই ওই বাড়িগুলিতে থাকছে।
তৃণমূলের তরফে অভিযোগপত্রে বহিরাগত ব্যক্তিদের আসল বাড়ির ঠিকানা সহ সম্পূর্ণ খবর লিখিত ভাবে কমিশনকে দেওয়া হয়েছে। চিঠিতে অভিযোগ করা হয়েছে, নন্দীগ্রামের স্থানীয় পুলিশকে জানানো হলেও তারা কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। যদিও সংশ্লিষ্ট বাড়ির এক মালিকের দাবি, কোনও বহিরাগত নেই তাঁদের এলাকায়।
চিঠিতে উল্লেখ করা ৪টি বাড়ির ঠিকানায় রয়েছে নন্দীগ্রাম রেয়াপাড়া হাসপাতাল মোড়ে কালীপদ শীর বাড়ি। দ্বিতীয়টি বিজেপি নেতা মেঘনাদ পালের। তৃতীয় বাড়ি টেঙ্গুয়া-২ পঞ্চায়েতের তেরোপাখিরা গ্রামে।
তৃণমূলের অভিযোগ, ডিসেম্বর মাস থেকেই এই বাড়িগুলিতে ৫০-৬০ জন করে যুবক থাকছেন। তাঁদের সকলেরই আদত বাড়ি কোলাঘাট, পিংলা, কাঁথি এলাকায়। এছাড়াও চণ্ডীপুর-নন্দীগ্রাম রোড থেকে ১ কিলোমিটার ভিতরে ৩ তলা একটি বাড়িটি তাঁবু দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে। সেখানে শুভেন্দুর নির্বাচনী এজেন্ট-সহ ৪০-৫০ জন বহিরাগত আশ্রয় নিয়েছেন বলে কমিশনকে করা অভিযোগে জানিয়েছে তৃণমূল।

Comments
Loading...