যশের আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই ফের ভরা কোটালের ভ্রুকুটি

যশের আতঙ্ক কাটতে না কাটতেই ফের ভরা কোটালের ভ্রুকুটি। একদিকে যশ অন্যদিকে ভরা কোটালে দক্ষিণ ২৪ পরগনা সহ পূর্ব মেদিনীপুরের একাধিক গ্রাম প্লাবিত হয়েছিল। কিন্তু এই অমাবস্যার ভরা কোটালের জেরে কলকাতা সহ বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। কলকাতার এলাকাগুলি জলমগ্ন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এই বিষয়ে আগেই সতর্ক করে দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জেরে দক্ষিনবঙ্গে প্রবেশ করবে বর্ষা। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে দক্ষিণবঙ্গের একধিক জেলায়। কলকাতা, হাওড়া, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিন ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদীয়া জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে উত্তরবঙ্গে ইতিমধ্যেই বর্ষা প্রবেশ করেছে। দার্জিলিং, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর সঙ্গে দোসর হয়েছে, অমাবস্যার ভরা কোটাল। হাওয়া ইফিস সূত্রের খবর, ভরা কোটালের জেরে দিঘায় ১৬ ফুট পর্যন্ত জলোচ্ছ্বাস হতে পারে।

তবে শুক্রবার কলকাতায় মেঘবৃষ্টির খেলা চলবে। মাঝে মাঝে হতে পারে বৃষ্টি।

Comments
Loading...