অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতারিতে কি ভীত Times Now এর রাহুল শিবশঙ্কর? কী লিখলেন ট্যুইটে?

রিপাবলিক টিভির এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতারিতে কি ভীত সাংবাদিক মহলের একাংশ? এই প্রশ্ন উসকে দিয়েছে Times Now চ্যানেলের অন্যতম মুখ রাহুল শিবশঙ্করের একটি ট্যুইট।

বুধবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে রাহুল শিবশঙ্কর লেখেন, আপনারা সমর্থন করতে পারেন কিংবা বিরোধিতা, কিন্তু অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতার সমস্ত সীমা অতিক্রম করে গিয়েছে। সবাই জিজ্ঞেস করছেন, এরপর কে? মনে পড়ে যাচ্ছে, সাজানো মামলায় দু’বার আমাকে গ্রেফতার করতে পুলিশ এসেছিল।

টাইমস নাউ চ্যানেলের অন্যতম মুখ রাহুল শিবশঙ্করের ট্যুইটের পর প্রশ্ন উঠছে, তিনিও কি গ্রেফতার হওয়ার আশঙ্কা করছেন? কেন তাঁর এমন আশঙ্কা?

টাইমস নাউ চ্যানেলের একদা মুখ ছিলেন অর্ণব গোস্বামী। রিপাবলিক টিভি তৈরি করে সেখানে চলে যাওয়ার পর অর্ণবের জায়গায় টাইমস নাউ চ্যানেলের অন্যতম মুখ হয়ে ওঠেন রাহুল শিবশঙ্কর। রিপাবলিক তৈরির পর থেকেই ইংরেজি নিউজের প্রতিযোগিতায় যুযুধান হয়ে ওঠে অর্ণব গোস্বামীর প্রাক্তন ও বর্তমান চ্যানেল। কোনও সপ্তাহে রিপাবলিক শীর্ষে তো পরের সপ্তাহেই টাইমস নাউ। টেলিভিশন রেটিং পয়েন্ট দখলে দুই চ্যানেল সংবাদের বদলে উত্তেজনা ছড়ানোর মাধ্যমে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন অনেকেই। কিন্তু দুই চ্যানেলের রেষারেষি কমেনি। পর্যবেক্ষকদের মতে, অর্ণব গোস্বামীর আগ্রাসী সাংবাদিকতার পাল্টা হিসেবে টাইমস নাউ তুলে ধরে রাহুল শিবশঙ্কর ও নভিকা কুমার জুটিকে। এর মধ্যেই টিআরপি জালিয়াতিতে নাম জড়িয়েছে অর্ণব গোস্বামীর রিপাবলিকের। ২০১৮ সালের এক আত্মহত্যার মামলায় বুধবার তাঁকে গ্রেফতার করে মহারাষ্ট্রের রায়গড় পুলিশ।

এই প্রেক্ষিতে প্রশ্ন উঠছে, অর্ণব গোস্বামীর গ্রেফতারির পর কি এবার রাহুল শিবশঙ্করের পালা? তাই কি আগেভাগেই গ্রেফতারির আশঙ্কা জানিয়ে রাখলেন তিনি!

 

Comments
Loading...