আস্থাভোটে ফের বনগাঁ পুরসভা দখল করল তৃণমূল, জিতল ১৪-০ ফলে, আবার হাইকোর্টে বিজেপি

বনগাঁ পুরসভার আস্থাভোটে বিনা বাধায় জয়ী হল তৃণমূল। বৃহস্পতিবার বারাসতে উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাসকের দফতরে অনুষ্ঠিত হওয়া আস্থাভোটে উপস্থিত ১৪ জন কাউন্সিলারের প্রত্যেকেই তৃণমূল চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শঙ্কর আঢ্যের পক্ষে ভোট দেন। অন্যদিকে, আস্থাভোটে অনিয়মের অভিযোগ এনে ফের কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বিজেপি।
গত কয়েক মাস ধরেই বনগাঁ পুরসভার আস্থাভোট নিয়ে টানাপোড়েন চলছে। ২২ আসনের বনগাঁ পুরসভার ১২ জন কাউন্সিলার পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন লোকসভা ভোটের পরই। ফলে তৃণমূলের কাউন্সিলার সংখ্যা দাঁড়ায় ৮ এবং বিজেপির ১২। বাকি ২ জন কাউন্সিলারের মধ্যে ১ জন সিপিএমের ও ১ জন কংগ্রেসের। এর মধ্যে কিছুদিন আগে বিজেপিতে যাওয়া ১ কাউন্সিলার ফের তৃণমূলে ফেরেন। আস্থাভোটও সম্পন্ন হয়। কিন্তু ভোটের দিন বিজেপি কাউন্সিলারদের অনাস্থা প্রস্তাবে অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ ওঠে। কলকাতা হাইকোর্ট পর্যন্ত মামলা গড়ায়। এরপর ফের জেলাশাসকের দফতরে নতুন করে অনাস্থার নির্দেশ দেয় উচ্চ আদালত। এই সময়ের মধ্যে আরও ৪ জন দলত্যাগী কাউন্সিলারকে ঘরে ফেরায় তৃণমূল শিবির। তৃণমূলের কাউন্সিলার সংখ্যা বেড়ে হয় ১৩ এবং বিজেপির কাউন্সিলার সংখ্যা কমে হয় ৭। বৃহস্পতিবার আস্থাভোটে যে ১৪ জন কাউন্সিলার অংশ নেন তাঁরা প্রত্যেকেই পুরপ্রধান শঙ্কর আঢ্যের পক্ষে ভোট দেন। কিন্তু বিজেপির পক্ষে কোনও কাউন্সিলার ভোটে অংশ নেননি বলে খবর। বৃহস্পতিবার ফের আস্থাভোটে অনিয়মের অভিযোগে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন বিজেপি কাউন্সিলাররা।

Comments
Loading...