নরেন্দ্র মোদীকে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে গ্রেফতার ভারভারা রাওসহ একাধিক মানবাধিকার কর্মী

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে গ্রেফতার করা হল মানবাধিকার কর্মী, মাওবাদীদের প্রতি সহানুভুতিশীল কবি এবং সাহিত্যিক ভারভারা রাওকে। তাঁর সঙ্গে দেশের একাধিক শহরে অভিযান চালিয়ে আরও অন্তত পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে মাওবাদীদের সঙ্গে যোগাযোগ থাকার অভিযোগে। মঙ্গলবার সকাল থেকে মহারাষ্ট্র পুলিশের একাধিক দল দিল্লি, ফরিদাবাদ, গোয়া, রাঁচি, হায়দরাবাদসহ বিভিন্ন শহরে হানা দেয়। হায়দরাবাদ নিজের বাড়ি থেকে ভারভারা রাওকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এবছর জানুয়ারি মাসে পুনের কোরেগাঁও ভিমাতে দলিতদের সঙ্গে উচ্চ বর্ণের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দলিতদের মিছিলকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল। তারপরই একাধিক অধ্যাপক, আইনজীবী, মানবাদিকার কর্মী সেই ঘটনায় দলিতদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। সেই ঘটনার সূত্র ধরে এবছর জুন মাসে পুনে পুলিশ মাওবাদীদের সঙ্গে সম্পর্কের অভিযোগে সুধীর ধাওয়ালে, সুরেন্দ্র গ্যাডলিং, মহেষ রাউত, রোনা উইলসন এবং সোমা সেন নামে পাঁচ মানবাধিকার কর্মীকে গ্রেফতার করেছিল। আদালতে পুলিশ দাবি করেছিল, ধৃতদের কাছ থেকে মাওবাদীদের চিঠি উদ্ধার হয়েছে এবং তা থেকে জানা গিয়েছে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছিলেন। সেই গ্রেফতারির সূত্র ধরেই এদিন সকালে পুনে পুলিশের বিশেষ দল দেশের বিভিন্ন শহরে অভিযান চালায়। হায়দরাবাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে ভারভারা রাওকে। এছাড়াও ফরিদাবাদ থেকে সুধা ভরদ্বাজ, মুম্বই থেকে অরুণ ফেরেরা এবং ভেনন গনজালভেস, রাঁচি থেকে স্ট্যান স্বামী এবং তেলেঙ্গানা থেকে ক্রান্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এদিনের এই গ্রেফতারির পর দেশজুড়ে প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন একাধিক মানবাধিকার সংগঠন। তাদের অভিযোগ, সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কবি, সাহিত্যক, মানবাদিকার কর্মী এবং গরিব, দলিতদের পক্ষে সওয়াল করা ব্যক্তিদের গ্রেফতার করা হচ্ছে।

Comments
Loading...