সবজি উৎপাদনে দেশের মধ্যে সেরা পশ্চিমবঙ্গ, বলছে কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রক

যোগী রাজ্যকে পিছনে ফেলে ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে সবজি উৎপাদনে দেশের সেরা রাজ্য হিসেবে উঠে এল পশ্চিমবঙ্গ। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রক আয়োজিত একটি সম্মেলনে রাজ্যভিত্তিক সবজি উৎপাদনের তথ্য প্রকাশ করা হয়। তাতে দেখা যায়, ২০১৮-১৯ সালে এ রাজ্যে ২.৯৫৫ কোটি টন সবজি উৎপাদন হয়েছে। ২০১৭-১৮ আর্থিক বছরে এই পরিমাণ ছিল ২.৭৭ কোটি টন। ২০১৮-১৯ সালে দেশের উৎপাদিত মোট সবজির মধ্যে বাংলার ভাগ ১৫.৯ শতাংশ।
গত আর্থিক বছরে সবজি চাষে এক নম্বরে ছিল উত্তরপ্রদেশ। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে সবজি চাষের জমির পরিমাণ ১২ লক্ষ হেক্টর। পশ্চিমবঙ্গে সবজি চাষের এলাকার আয়তন প্রায় ১৫ লক্ষ হেক্টর। বেশ কয়েক বছর ধরে সবজি উৎপাদনে শীর্ষ স্থান দখলের জন্য পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তরপ্রদেশ পরস্পরকে টক্কর দিচ্ছে। গতবার দুই নম্বরে থাকলেও, এবার উত্তরপ্রদেশকে ছাপিয়ে শীর্ষে উঠে এল পশ্চিমবঙ্গ।
রাজ্যের কৃষি ও কৃষি বিপণন দফতর বলছে, শুধু সবজি উৎপাদনই বেড়েছে তা নয়, কৃষিজ উৎপাদনের জন্য আগের চেয়ে ঢের বেশি দাম পাচ্ছেন বাংলার কৃষকরা। শীতকালীন সবজির ন্যায্য দাম না পেয়ে যখন অন্যান্য রাজ্যে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কৃষকরা, তখন এখানকার পরিস্থিতি অনেক ভালো। নতুন আলু থেকে ফুলকপি, বাঁধাকপি চাষিরা শীতের শেষবেলাতেও ভালো দাম পেয়েছেন।
রাজ্য সরকারের এক শীর্ষ আধিকারিকের কথায়, আলু উৎপাদনেও উত্তরপ্রদেশের পরেই রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। তবে সে রাজ্যে আগ্রা ব্র্যান্ডের আলু বাজারে প্রতিষ্ঠিত। গ্রেডিং, শর্টিং ও প্যাকেজিংয়ের জন্যই এই বাজার দখল সম্ভব হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও সবজির বাজার বাড়াতে কৃষি পণ্যের গ্রেডিং, শর্টিংয়ে বিশেষ জোর দেওয়া হচ্ছে। তাছাড়া কৃষিপণ্যের সংরক্ষণের জন্য রাজ্যের কৃষকদের সরকারি সহায়তা করা হচ্ছে। জৈব চাষের সম্প্রসারণ হলে রাজ্যের সবজি উৎপাদনের ছবি আরও ভালো হবে বলে আশাবাদী তাঁরা।

 

Comments
Loading...