আন্দোলনে উত্তাল দিল্লি-সহ দেশের অনেক শহর, আটক ইয়েচুরি, ডি রাজা, যোগেন্দ্র যাদব, সন্দীপ দীক্ষিত

নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ করতে রাস্তায় নেমে আটক হলেন সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআই সম্পাদক ডি রাজা, স্বরাজ ইন্ডিয়ার নেতা যোগেন্দ্র যাদব প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার দিল্লি, বেঙ্গালুরু, মুম্বই, পাটনা-সহ ১১ টি বড় শহর কেন্দ্রের নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় উত্তাল হয়ে ওঠে। দিল্লি, বেঙ্গালুরু সহ বিভিন্ন শহরে আন্দোলন ঠেকাতে জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। সকালেই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের আন্দোলনে পথে নামায় বেঙ্গালুরু থেকে আটক হন ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহ। বেলা গড়াতেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আন্দোলনকারী বিরোধী নেতা, বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বকে আটক করা হয়।
বৃহস্পতিবার দুপুরে দিল্লিতে কংগ্রেস নেতা সন্দীপ দীক্ষিত আটক করে পুলিশ। এরপর সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি ও সিপিআই সম্পাদক ডি রাজাকে আটক করে পুলিশ গাড়িতে তোলে। দুপুর ১২ টায় লালকেল্লা থেকে মিছিল করার কথা ছিল বামেদের। কিন্তু সেই মিছিলের অনুমতি দেওয়া হয়নি। উপরন্তু জারি করা হয় ১৪৪ ধারা। ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে আন্দোলনে অংশ নিতে গেলে আটক করা হয় ছাত্র ও সমাজকর্মীদের। সমাজকর্মী ও জেএনইউ প্রাক্তনী উমর খালিদকেও দিল্লিতে আটক করা হয়েছে। প্রবল আন্দোলন ও গোলমালের জেরে দিল্লিতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা।
দক্ষিণ হায়দরাবাদের ডিসিপি অবিনাশ মোহান্তি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এদিন হায়দরাবাদ থেকে নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় পথে নামায় প্রায় ৫০ জন আটক করেছে পুলিশ। বিহারের বিভিন্ন জায়গায়ও বিক্ষিপ্ত গোলমাল ও আন্দোলনকারীদের আটক করার খবর পাওয়া গিয়েছে।
রামচন্দ্র গুহকে আটকের প্রতিবাদ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। রামচন্দ্র গুহ, রাজনীতিবিদ যোগেন্দ্র যাদবকে আটক করার তীব্র বিরোধিতা করে ট্যুইট করেন দক্ষিণের অভিনেতা ও রাজনীতিবিদ কমল হাসান।

Comments
Loading...