ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলনকারীর মৃত্যুতে ফের উত্তপ্ত ফ্রান্স, এই নিয়ে মৃত্যু হল ৬ বিক্ষোভকারীর

পেট্রোপণ্য এবং সাধারণ জিনিসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলন অব্যাহত। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ফ্রান্সে এক ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলনকারীর ট্রাকের ধাক্কায় মৃত্যু ঘিরে অশান্তি ছড়াল। ফরাসি সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ২৩ বছরের এক আন্দোলনকারীকে দ্রুত গতির একটি ট্রাক ধাক্কা মারলে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। গাড়ির চালককে আটক করেছে পুলিশ।
এই নিয়ে গত এক মাসে ৬ জন ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলনকারী মারা গিয়েছেন বলে খবর। ১৭ই নভেম্বর সাঁভোতে আন্দোলন চলাকালীন একটি মোটর বাইকের ধাক্কায় প্রথম মৃত্যু হয় এক ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলনকারীর। ডিসেম্বরের ২ তারিখ এক মোটর সাইকেল ও ট্রাকের সংঘর্ষে মৃত্যু হয় বাইক আরোহীর। সে সময় আন্দোলন চলছিল ওই রাস্তায়। ১ লা ডিসেম্বর পুলিশ কাঁদানে গ্যাসের শেল ছুড়লে মৃত্যু হয় ৮০ বছরের এক বৃদ্ধা আন্দোলনকারীর।
বৃহস্পতিবার ২৩ বছরের ওই আন্দোলনকারী যুবক বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন একটি পেট্রল পাম্পের সামনে। সেখানে দ্রুত গতিতে একটি ট্রাক হঠাৎ ঢুকে পড়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে অশান্তি ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। পরে পুলিশ ওই ট্রাক চালককে আটক করে।
প্রসঙ্গত, চার সপ্তাহ কেটে যাওয়ার পরেও ফ্রান্সে ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলন অব্যাহত। পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ও কর বসানোর প্রতিবাদ ছাড়াও, রান্নার গ্যাস, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে প্রথমে বামপন্থীদের নেতৃত্বে শুরু হয় ইয়েলো ভেস্ট মুভমেন্ট। এই আন্দোলনে সামিল হন ছাত্র থেকে বৃদ্ধ, বহু সাধারণ মানুষ। প্রেসিডেন্ট মাকরেঁর পদত্যাগের দাবিতে তীব্র হতে থাকে এই আন্দোলন। প্যারিসসহ অন্যান্য শহরে গত শনিবার ভয়াবহ চেহারা নেয় আন্দোলন। আগে থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয় আইফেল টাওয়ার, লুঁভর মিউজিয়াম থেকে অন্যান্য দর্শনীয় স্থান। বহু দোকান-বাজার বন্ধ এখনও পর্যন্ত। বড়দিনের আগে চেনা ছবি হারিয়ে থমথমে প্যারিস। পর্যটকের সংখ্যাও কমে গিয়েছে। বহু বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতারের পরেও জারি রয়েছে এই আন্দোলন।

Comments
Loading...