পিছু হঠলেন যোগী, উত্তর প্রদেশে দুর্গা পুজোর অনুমতি

চাপের মুখে পিছু হঠলেন যোগী আদিত্যনাথ। অবশেষে উত্তর প্রদেশে প্যান্ডেল করে দুর্গা পুজো করার অনুমতি দিল বিজেপি সরকার। কয়েকদিন আগেই মুখ্য মন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছিলেন, করোনা পরিস্থিতিতে এবার প্যান্ডেল করে সর্বজনীন দুর্গা পুজোর আয়োজন করা যাবে না তাঁর রাজ্যে। কেউ চাইলে বাড়িতে মূর্তি গড়ে পুজো করতে পারেন। এদিকে রামলীলা অনুষ্ঠানের অনুমতি দেন। যা নিয়ে প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়। দুর্গা পুজোয় ছাড় নেই, অথচ রামলীলায় কেন ছাড় দেওয়া হচ্ছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বাঙালি বিজেপি সাংসদরাই। যোগী আদিত্যনাথের ওই সিদ্ধান্ত ‘অযৌক্তিক’ বলে সুর চড়ান বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। যোগী আদিত্যনাথকে চিঠি দিয়েছিলেন এ রাজ্যের বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদারও।

সব মিলিয়ে অবশেষে আগের অবস্থান থেকে সরে এসে বৃহস্পতিবার দুর্গা পুজো নিয়ে নতুন নির্দেশিকা দিল উত্তর প্রদেশ সরকার। সেখানে দুর্গা পুজো থেকে শুরু করে রামলীলা, সাতটি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচনের জন্য প্রচার, বিবাহ অনুষ্ঠান-সব কিছুরই অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে, সবই করতে হবে শারীরিক দূরত্ব, মাস্ক ব্যবহার সহ নানা কোভিড বিধি মেনে। উত্তর প্রদেশের স্বরাষ্ট্র দপ্তরের অ্যাডিশনাল চিফ সেক্রেটারি অবনীশ কুমার অবস্থি জানান, দুর্গা পুজো ও বিসর্জনে কোনও বাধা থাকছে না। কিন্তু তা কী ভাবে হবে, কত লোক একসঙ্গে জমায়েত করতে পারবেন, সে সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন সংশ্লিষ্ট জেলা শাসক।

এই নির্দেশিকায় স্বাভাবিক ভাবেই খুশি সেখানকার দুর্গা পুজো কমিটিগুলি। উত্তর প্রদেশের জানকীপুরম এলাকার একটি দুর্গা পুজো কমিটির সদস্য আনন্দ ব্যানার্জি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, পুজোর আর বেশি সময় বাকি নেই। তাই আমরা সারা রাত ধরেই পুজোর পরিকল্পনা করেছি। মুখ্যমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের পুজো আয়োজনের অনুমতি দেওয়ার জন্য।

 

Comments
Loading...