প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার মামলা শুনবে ৩ বিচারপতির বেঞ্চ, অভিযোগকারিণীকে নোটিস

প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগে শনিবার শীর্ষ আদালতে যে শুনানি হয়, তার বিচারকের আসনে ছিলেন রঞ্জন গগৈ নিজেই। যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক হয়। অবশেষে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হেনস্থার অভিযোগের তদন্ত করার জন্য তাঁকে বাদ রেখে, বিচারপতি এস এ বোবদে, বিচারপতি এন ভি রামানা এবং বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্যানেল গঠন করা হল। মঙ্গলবার বিচারপতি বোবদে জানান, প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের পর তিনিই সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ বিচারপতি, তাই প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্ত প্যানেলে থাকছেন তিনি নিজে। প্যানেলের অপর দুই সদস্যের মধ্যে রয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আরেক প্রবীণ বিচারপতি এন ভি রামানা এবং বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিচারপতি বোবদে জানান, প্রধান বিচারপতি গগৈর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন একজন মহিলা, তাই প্যানেলে ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি, যে অভিযোগকারিণী যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন, তাঁকে বুধবার নোটিস পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর।
বিচারপতি বোবদে, বিচারপতি রামানা ও বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঞ্চ আগামী ২৬ এপ্রিল অভিযোগকারিণীকে সুপ্রিম কোর্টে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। শুক্রবার এই মামলার প্রথম শুনানি, সেই মতো সুপ্রিম কোর্টের সেক্রেটারি জেনারেলকে সংশ্লিষ্ট মামলার যাবতীয় তথ্য যোগাড় করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
গত শনিবার সুপ্রিম কোর্টের ২২ জন বিচারপতিকে চিঠি লেখেন বছর ৩৫-এর এক মহিলা। চিঠিতে অভিযোগ করেন, তাঁকে যৌন হেনস্থা করেছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। মহিলার অভিযোগ, গত বছর অক্টোবরের ১০ এবং ১১ তারিখ রঞ্জন গগৈ নিজের বাড়ির অফিসে তাঁর সঙ্গে আপত্তিকর আচরণ করেন এবং পরে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্তও করা হয়। শুধু তাই নয়, তাঁর পরিবারকে হেনস্থা করা হচ্ছে, ভয় দেখানো হয়েছে, বলেও অভিযোগ করেন ওই মহিলা।
মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার জরুরি ভিত্তিতে শুনানি হয় সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল বেঞ্চে। সেখানে যৌন হেনস্থার অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, বিচার বিভাগের উপর সঙ্কট ঘনিয়ে এসেছে।

Comments
Loading...