ভোট দেওয়ার আগে মোদীর রোড শো নিয়ে অভিযোগ করল কংগ্রেস, জবাব তলব কমিশনের

মঙ্গলবার লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় পর্বে গুজরাতের আহমেদাবাদে নিজের ভোট দিতে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নিজের ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে যাওয়ার আগে মায়ের সঙ্গেও দেখা করেন মোদী। পরে সেখান থেকে একটি হুডখোলা জিপে চড়ে এবং কিছুটা পায়ে হেঁটে অনেকটা রোড-শো এর আদলে নিজের ভোট কেন্দ্রে পৌঁছোন নরেন্দ্র মোদী। নরেন্দ্র মোদীর এই রোড-শো নিয়েই আপত্তি তুলেছে বিরোধীরা। যার জেরে গোটা ঘটনাটি সম্পর্কে জানতে চেয়েছে নির্বাচন কমিশন।
বিরোধী কংগ্রেদের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রোড-শো এর মাধ্যমে ভোটের দিন, আচরণ বিধি লঙ্ঘণ করে ভোটগ্রহণ পর্ব চলাকালীন কার্যত নির্বাচনী প্রচার করেছেন। এই অভিযোগে বিরোধী কংগ্রেসের তরফে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছেও। কংগ্রেসের করা এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রীর জবাব তলব করেছে বলে জানা গিয়েছে।
এদিন প্রধানমন্ত্রী রোড শোয়ের পাশাপাশি কয়েক মিনিটের জন্য নিজের বক্তব্যও রাখেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আতঙ্কবাদীদের অস্ত্র আইইডি হলে গণতন্ত্রের শক্তি হল ভোটদান। ভোটার আইডি, আইইডির থেকেও বেশি শক্তিশালী। জানা গেছে, কংগ্রেসের তরফে নির্বাচন কমিশনে দাবি জানানো হয়েছে, নির্বাচনের এই আচরণ বিধি লঙ্ঘনের জন্য আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কোনও নির্বাচনী প্রচার বা ভাষণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করুক কমিশন।
তবে পালটা অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপিও। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এদিন ট্যুইটি করে জানিয়েছিলেন, দেশের যুব সম্প্রদায় এবং তাদের মধ্যে অনেকেই প্রথমবারের ভোটার, তারা প্রচুর সংখ্যায় ভোট দিতে আসছেন। এটা ভাল খবর। গণতন্ত্রের ন্যায়ের জন্য আগামী প্রজন্মের ভোটদান খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু কমিশনে রাহুলের এই ট্যুইট নিয়ে অভিযোগ করেছে বিজেপি। ‘ন্যায়’ এর প্রচার করা হচ্ছে এভাবে বলে অভিযোগ তাদের।

Comments
Loading...