অভিষেক: শুভেন্দু উপসর্গহীন বেইমান, এক ভাইকে নিয়ে গিয়েছে, পরিবারের বাকিরা আইসোলেশনে, বুঝতে সুবিধা হয়েছে আমাদের

এবার কি শিশির ও দিব্যেন্দু অধিকারীও বিজেপিতে? অভিষেকের ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য

অভিষেক বনাম শুভেন্দুর বাকযুদ্ধ অব্যাহত। শুভেন্দুকে এবার ‘উপসর্গহীন বেইমান’ বলে উত্তর দিনাজপুরের সভা থেকে তীব্র আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ তথা যুব তৃণমূলের সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জি।
দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গাপুর স্টেডিয়াম গ্রাউন্ড থেকে অভিষেকের মন্তব্য, উপসর্গহীন করোনা হলে যেমন গলাটা ব্যাথা করে শুভেন্দু তেমনি উপসর্গহীন বেইমান। তাঁর কথায়, আমি চ্যালেঞ্জ করেছিলাম নিজের পরিবারে পদ্ম ফুটিয়ে দেখান। তার প্রমাণ দিতে এক ভাইকে বিজেপিতে নিয়ে গিয়েছেন। আর পরিবারের বাকিদের আইসোলেশনে পাঠিয়েছেন। অভিষেক আরও যোগ করেন, এতে আমাদের কাজ সহজ হয়ে গিয়েছে যে, কারা কারা উপসর্গহীন বেইমান।
প্রসঙ্গত, শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রেক্ষিতে সাংসদ শিশির অধিকারী ও দিব্যান্দু অধিকারী কোন দিকে যাবেন তা নিয়ে তীব্র জল্পনা শুরু হয়। এর মধ্যে শুভেন্দুর এক ভাই সৌমেন্দু অধিকারীকে কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে অপসারণ করার পর দাদার হাত ধরে তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। অন্যদিকে অধিকারী পরিবারকে এই অপমানের জবাব দেবে মানুষ বলে তৃণমূল নেতৃত্বকে বার্তা দিয়েছেন শুভেন্দুর বাবা বর্ষীয়ান সাংসদ শিশির অধিকারী। তিনি তৃণমূলের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সভাপতিও বটে।
ছেলে শুভেন্দু বিজেপিতে যাওয়ার পর তৃণমূলের কোনও সভামঞ্চে দেখা যায়নি শিশিরবাবুকে। তাঁর আর এক ছেলে তমলুকের তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক অবস্থান নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। তৃণমূল সূত্রের খবর, শিশির ও দিব্যেন্দুর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা যায়নি বেশ কিছুদিন। এই প্রেক্ষিতে অভিষেক ব্যানার্জির এদিনের মন্তব্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। শুভেন্দুর তাঁর পরিবারের ‘আইসোলেশন’ এ পাঠানোয় তাঁদের ‘বুঝতে’ সুবিধা হয়েছে বলে কী বোঝালেন তৃণমূল সাংসদ? এবার কি শিশির ও দিব্যেন্দুর বিজেপিতে যোগদান চূড়ান্ত?
দক্ষিণ দিনাজপুরের সভা থেকে শুভেন্দুর মন্তব্যকে বিঁধে অভিষেকের আরও কটাক্ষ, বাংলা কি কোনও বস্তু না হাতের মোয়া যে নরেন্দ্র মোদীর হাতে তুলে দিতে হবে? দিল্লির হাতে বাংলা তুলে দিলে চুরি করতে সুবিধা হবে? ইডি, সিবিআই লাগবে না? নাম না করে শুভেন্দুকে অভিষেকের আরও কটাক্ষ, ‘তোলাবাজ তো তুমি। কাকে মানুষ টাকা নিতে দেখেছেন টিভির পর্দায়? এখন সততার প্রতিমূর্তি সাজা হচ্ছে?
একইসঙ্গে বিজেপি নেতাদের অভিষেকের চ্যালেঞ্জ, আমি তোলাবাজি করি কেউ প্রমাণ করতে ফাঁসির মঞ্চে জীবন দিতে প্রস্তুত।

Comments
Loading...