করোনা সংক্রমিত অশোক ভট্টাচার্য, ভর্তি মাটিগাড়ার বেসরকারি হাসপাতালে, অবস্থা স্থিতিশীল জানালেন চিকিৎসকেরা

করোনা সংক্রমিত শিলিগুড়ির বিধায়ক তথা পুরসভার প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য। প্রথমবার তার করোনা রিপোর্ট রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। কিন্তু জ্বর না কমায় দ্বিতীয়বার পরীক্ষা করা হয়। তাতেই কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ে। অশোক ভট্টাচার্য মাটিগাড়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অশোক ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে।
বেশ কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী। জানা গিয়েছিল, তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। হাসপাতালে চিকিৎসাও চলছিল তাঁর। তার পরেই অশোক ভট্টাচার্যের কোভিডের উপসর্গ দেখা দেয়। রবিবার সোয়াব টেস্ট করা হয়। তবে সেই সোয়াব টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে লালারসের নমুনা পরীক্ষা করানো হয়। মঙ্গলবার রাতে সেই নমুনার ফলাফল পজিটিভ এসেছে। ৬২ বছরের অশোকবাবু এখন শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তিনি ডায়াবেটিক। সে কারণেই বাড়তি নজরে রাখা হয়েছে শিলিগুড়ির বিধায়ককে।
অশোকবাবুর করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবরে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন দলীয় কর্মীরা। কারা কারা সম্প্রতি তাঁর সংস্পর্শে এসেছেন তার খোঁজ চলছে। প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত রাজনৈতিক নেতাদের অনেকেই করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়েছেন। কিছুদিন আগেই হাসপাতালে চিকিৎসা করিয়ে রোগমুক্ত হয়েছেন রাজ্যের দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। তৃণমূলের বিধায়ক তমোনাশ ঘোষও এই ভাইরাসের শিকার হন। এছাড়া সম্প্রতি উত্তর ২৪ পরগনার তৃণমূল বিধায়ক নির্মল ঘোষ করোনায় সংক্রমিত হন।
এদিকে দার্জিলিং জেলায় ইতিমধ্যে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ২২০ জন। দার্জিলিংয়ে কোভিডে মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের।

Comments
Loading...