তেলেঙ্গানা এনকাউন্টারকে বাহবা দিয়ে ট্যুইট, পরে ভুল স্বীকার করে সোশ্যাল মিডিয়া টিমকে বরখাস্ত বাবুল সুপ্রিয়র

তেলেঙ্গানায় তরুণীকে গণধর্ষণ ও পুড়িয়ে খুনে অভিযুক্ত ৪ জনকে এনকাউন্টারে মেরে ফেলার ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড়। সাধারণ মানুষের একাংশ দু’হাত তুলে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন পুলিশকে। অন্যদিকে এনকাউন্টারের তীব্র নিন্দা করে তার ভয়াবহ পরিণতির কথা মনে করিয়ে দিচ্ছেন বিদ্বজ্জ্বনরা থেকে শুরু করে রাজনীতিবিদদের একাংশ।

এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার দুপুর ১ টা নাগাদ নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি ট্যুইট করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। সেখানে তিনি লেখেন, মানবাধিকার মানুষের জন্য, এনকাউন্টারে মৃত ওই ৪ নরখাদকের জন্য নয়। তারপর ধন্যবাদ জানানো হয় হায়দরাবাদ সিটি পুলিশকে। শেষে হ্যাশট্যাগে লেখা হয় জাস্টিস ডেলিভারড।

দুপুর সাড়ে ৩ টে নাগাদ বাবুলের হ্যান্ডেল থেকেই আরও একটি ট্যুইট করা হয়। সেখানে বাবুল লেখেন, আগের ট্যুইটটি তাঁর লেখা নয়। তাঁর টিম (অবিনাশ পাণ্ডে) এটা করেছে এবং অবিনাশ পাণ্ডেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তারপর লেখা হয়েছে, আমি কড়াভাবে নিন্দা করছি এবং ঠিক এই কারণেই আমার হ্যান্ডেল চালাতে কখনও সোশ্যাল মিডিয়া টিম নিয়োগের পক্ষপাতী নই। কিন্তু আমি নিজেই এটা করেছি। আমার ভুল হয়েছিল।

এদিকে সাইবারাবাদের পুলিশ কমিশনার ভিএস সাজ্জনার দাবি করেন, ঘটনার পুনর্নির্মাণের জন্য ৪ অভিযুক্তকে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর পর তারা উপস্থিত পুলিশকর্মীদের বন্দুক ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। পুলিশের আত্মসমর্পণের আবেদনও অভিযুক্তরা শোনেনি বলে দাবি করেন কমিশনার। তারপরই গুলি চালিয়ে খতম করা হয় ৪ অভিযুক্তকে। ঘটনার ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্ত হবে বলে জানা গিয়েছে।

Comments
Loading...