মহারাষ্ট্রে উলট পূরাণ! সিএএ, এনআরসির বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ বিজেপি শাসিত পুরসভায়

সিএএ-এনআরসি-এনপিআর নিয়ে যখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ অনড়, ঠিক তখনই উল্টো ঘটনা ঘটল মহারাষ্ট্রে বিজেপি শাসিত এক পুরসভায়। মহারাষ্ট্রের প্রভানী জেলায় বিজেপি শাসিত একটি পুরসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি-র বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ হয়েছে। মহারাষ্ট্রের প্রভানী জেলার সেলু মিউনিসিপাল কর্পোরেশনে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সংখ্যাধিক্যের ভোটের জেরে ওই প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুরসভার চেয়ারম্যান বিনোদ বরাদে। মোট ৩০ জন প্রতিনিধি প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। জানা গিয়েছে, কংগ্রেস এবং বেশ কিছু সংখ্যক মুসলিম কাউন্সিলরের তরফে ওই প্রস্তাব আনার দাবি তোলা হয়েছিল।
মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে গত মাসেই জানিয়েছিলেন, তাঁর রাজ্যে এনআরসি হবে না। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছিলেন, সিএএ-র মধ্যে  ভয় পাওয়ার কিছু নেই, তাই মহারাষ্ট্রে সিএএ হবে। এদিকে উপ মুখ্যমন্ত্রী তথা এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার জানান, এই আইনে কারও নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া হবে না। অজিতের কাকা, এনসিপি’র সর্বোময় কর্তা শরদ পাওয়ার কিন্তু প্রথম থেকেই সিএএ-র বিরোধিতা করে আসছেন। রবিবার দলের এক সভায় বলেন, সিএএ, এনআরসি এবং এনপিআর-এর ফলে একজনও নাগরিকত্ব হারাবেন না। ফলে বিধানসভায় এর বিরোধিতা করে প্রস্তাব পাশের কোনও দরকার নেই। সেলু মিউনিসিপাল কর্পোরেশনে সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাশ নিয়ে বিজেপির তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে রাজনৈতিক মহল মনে করছে, এতে মহারাষ্ট্রে বিজেপির মুখ পুড়ল।

Comments
Loading...