শীতলকুচিতে মৃত বলে ভুয়ো ছবি প্রচার বিজেপির! হাতেনাতে ধরার দাবি ডেরেকের

ভোটের পর বিজেপি আইটি সেলের বিরুদ্ধে ফেক নিউজ ছড়ানোর অভিযোগ উঠছিল। এবার তার প্রমাণ দিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। বুধবার টুইটে ডেরেক দাবি করেন, বিজেপি ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছে। এমন কী তা করতে গিয়ে জীবিত মানুষকেও মৃত বানাতে হাত কাঁপছে না বিজেপির! ডেরেকের প্রশ্ন, আর কত নীচে নামবে বিজেপি?

ডেরেক ইন্ডিয়া টুডের এক সাংবাদিকের ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করেছেন। সেখানে অভ্র ব্যানার্জি নামে ওই সাংবাদিক জানিয়েছেন, তিনি শীতলকুচি থেকে প্রায় ১৩০০ কিলোমিটার দূরে থাকেন। বিজেপি আইটি সেল তাঁর নাম মানিক মৈত্র বলে দাবি করেছে। শুধু তাই নয়, শীতলকুচিতে ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনায় তিনি মারা গেছেন বলে ছবি দিয়ে মমতা ব্যানার্জিকে আক্রমণ করছে বিজেপি।

সাধারণ মানুষকে তিনি এই মিথ্যা পোস্টগুলি বিশ্বাস করতেও নিষেধ করেছেন। সকলের কাছে তাঁর আর্জি, আমি এখনও বেঁচে!

সোশ্যাল মিডিয়ার একটি বড় অংশের অভিযোগ বিজেপি ভোট পরবর্তী অশান্তির ঘটনাকে মরিয়া হয়ে সাম্প্রদায়িক রং দিতে চাইছে। আর তা করতে গিয়ে জনৈক অভ্র ব্যানার্জির ছবি নিয়ে তাঁকে মানিক মৈত্র বলে দাবি করছে বিজেপি। নিজেদের রাজ্য সংগঠনের ভেরিফায়েড পেজ থেকে সেই ছবি ব্যবহার করে দাবি করা হচ্ছে, শীতলকুচিতে ফল পরবর্তী সংঘর্ষে মানিক মৈত্র মারা গিয়েছেন। বিজেপির পেজের ওই স্ক্রিনশটে অবশ্য এর বেশি কিছু উল্লেখ করা হয়নি। ফলে জানা যাচ্ছে না, কোচবিহারের শীতলকুচিতে সত্যিই ভোট পরবর্তী কোন গোলমাল হয়েছিল কিনা। ডেরেকের অভিযোগ, বিজেপি ইচ্ছাকৃত ফেক নিউজ ছড়িয়ে দাঙ্গা বাঁধানোর পরিকল্পনা করেছে। সেই পরিকল্পনার অঙ্গ হিসেবেই অভ্র ব্যানার্জি হয়েছেন সংঘর্ষে নিহত শীতলকুচির মানিক মৈত্র।

Comments
Loading...