বামেদের ‘নবান্ন চলো’ সফল করতে লোক পাঠান মুখ্যমন্ত্রী! বিস্ফোরক অভিযোগ রূপা গাঙ্গুলির

বাম ছাত্র-যুব’র নবান্ন চলো সফল করতে লোক পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী! সিপিএমের এত লোক নেই। মানুষের চোখে ধুলো দিয়ে মমতা ব্যানার্জি পার পাবেন না। বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি সাংসদ রূপা গাঙ্গুলির।

দীর্ঘদিন পর প্রকাশ্যে এসেছেন রূপা গাঙ্গুলি। আর এসেই একের পর এক বিতর্কে জড়াচ্ছেন এই প্রাক্তন অভিনেতা। বোলপুর থেকে কীর্নাহারের পথে ছুটছে বিজেপির পরিবর্তন রথ। সেই রথে সওয়ার রূপা গাঙ্গুলি। শনিবার রূপা গাঙ্গুলি সরাসরি অভিযোগ করলেন তৃণমূল-সিপিএম গাঁটছড়ার। 

বৃহস্পতিবার কলকাতায় বাম ছাত্র-যুবরা শিক্ষা ও কাজের দাবিতে নবান্ন অভিযান করে। কলেজ স্ট্রিট থেকে মিছিল শুরু হয়। ধর্মতলার আগেই মিছিল আটকে দেয় পুলিস। শুরু হয় ব্যাপক গোলমাল। পুলিস লাঠি চালায়, কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। পাল্টা ইট-পাথর ছুঁড়তে থাকে ছাত্র-যুবরা। ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। আহত হন একাধিক ছাত্র-যুব এবং পুলিস কর্মী। পুলিশি জুলুমের প্রতিবাদে শুক্রবার ১২ ঘণ্টার বাংলা বনধ ডাকে বামেরা। এবার সেই ঘটনা নিয়ে নিজের তত্ত্ব হাজির করলেন পর্দার দ্রৌপদী। বললেন, নবান্ন চলো অভিযানকে সফল করে সিপিএমকে অক্সিজেন দিতে লোক পাঠিয়েছিলেন মমতা ব্যানার্জি। রূপার দাবি, সিপিএমের এত লোক নেই। তাঁর আরও দাবি, এভাবে মানুষকে বোকা বানানো যাবে না। সাংসদের অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রী তৃণমূলের ছেলেদের পাঠিয়েছিলেন বলেই সেদিন এত লোক সমাগম হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও অনেকটা একই অভিযোগ করেছিলেন। তাঁর দাবি ছিল এই অভিযান সফল করতে তৃণমূল চেষ্টার ত্রুটি করেনি। এবার বিজেপির সাংসদ রূপা গাঙ্গুলি সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর নাম করে দাবি করলেন, তৃণমূলের লোকেরা গিয়ে লাল পতাকা হাতে তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছে। যাতে বামেদের অক্সিজেন দেওয়া যায়। তাতে আখেরে তৃণমূলের লাভ। তৃণমূলের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।  

Comments
Loading...