পরিবেশকর্মী দিশা রবির গ্রেফতারের প্রতিবাদে সবর বলিউড মহল

“টুলকিট” শেয়ার করার অভিযোগে দেশদ্রোহীতার মামলায় আটক করে দিল্লি পুলিশ দিশাকে।

“টুলকিট” শেয়ারের অভিযোগে ২১ বছরের দিশা রবিকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশ। গ্রেফতারের খবর প্রকাশ্যে আসতেই রাজনৈতিক থেকে বলিউড মহল এবং বিশিষ্টরা ক্ষোভ উগরে দেয় দিল্লি পুলিশকে লক্ষ্য করে। বহু সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয় দিল্লি পুলিশ মহলকে। সোমবার দিশার গ্রেফতারের ঘটনাকে “জাতীয় লজ্জা” আখ্যা দিয়ে তারকা মহলের অনেকেই সমালোচনামূলক টুইট করেন।

ভারতে নয়া কৃষি আইনের প্রতিবাদে কৃষক আন্দোলনকে সমর্থনের আহ্বান জানানোর জন্য সুইডিশ পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ “টুলকিট” তৈরি করেছিলেন। সেই “টুলকিট” শেয়ার করার অভিযোগে দেশদ্রোহীতার মামলায় আটক করে দিল্লি পুলিশ দিশাকে। পুলিশের দাবি, ওই “টুলকিট” খালিস্থানপন্থী আন্দোলনকারীদের তৈরি। দেশদ্রোহীতার মামলায় আটক করা হয়েছে আরও দুই পরিবেশ আন্দোলন কর্মীকে, নিকিতা জেকব এবং শান্তনু মুলুকে।

শুধুমাত্র “টুলকিট” শেয়ার করার অভিযোগে দেশদ্রোহীতার মামলায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে, তা নিয়ে শোরগোল শুরু হয়ে যায় দেশের একাংশের মধ্যে। তাই এবার সাধারণ মানুষের সঙ্গে হাত মেলালেন তারকারা। তাঁরা প্রতিবাদের সুর চড়া করলেন নেট দুনিয়ায়। একের পর এক নিন্দুক মন্তব্য করে দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে টুইট করতে লাগলেন অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কার, উর্মিলা এবং দক্ষিণী অভিনেতা সিদ্ধার্থ।

সোমবার, “দ্য ওয়ার” সংবাদ মাধ্যমের একটি লিংক শেয়ার করে স্বারা ভাস্কর ক্যাপশনে লিখেন, “আমাদের লজ্জা হওয়া উচিত।” অন্যদিকে উর্মিলা মাতন্ডকর, মঙ্গলবার একটি টুইট করে প্রশ্ন করেন, “মহিলারা যখন রাজনীতিতে যোগ দেয়, তখন রাজনীতি কেন ভয় পেয়ে যায়?” নেটাগরিকদের ধারণা, দিশার নাম উল্লেখ না করলেও তাঁর গ্রেফতারি প্রসঙ্গেই এই টুইটটি করেছেন উর্মিলা।

শুধু এখানেই থেমে থাকেনি, দক্ষিণী অভিনেতা সিদ্ধার্থ দিশা রবির গ্রেফতারের প্রতিবাদে একাধিক টুইট করে প্রতিবাদের সুর চড়া করেছিলেন।

Comments
Loading...