একমাস চুপ থাকার পর বিতর্কের জবাব গায়িকা কণিকা কাপুরের, লিখলেন, তাঁর সংস্পর্শে এসে একজনও আক্রান্ত হননি

করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়েছেন অনেকদিন। কিন্তু তাঁকে নিয়ে বিতর্কে ছেদ পড়েনি। এবার সংক্রমণ ধরা পড়ার একমাস পর মুখ খুললেন বলিউড গায়িকা কণিকা কাপুর। জবাব দিলেন তাঁকে ঘিরে অক্সিজেন পাওয়া হাজারো বিতর্কের। রবিবার ইনস্টাগ্রামে নিজের বক্তব্য পোস্ট করেন শিল্পী।

ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণের একেবারে শুরুর দিকে ব্রিটেন থেকে ভারতে ফেরেন গায়িকা কণিকা কাপুর। দেশে ফিরে মুম্বই ও লখনউতে যান তিনি। তারপর ধরা পড়ে কণিকা কাপুর করোনা পজিটিভ। ফলে মুম্বই ও লখনইতে তাঁর সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন, আশঙ্কা তৈরি হয় তাঁদের নিয়ে। অভিযোগ উঠতে থাকে কোয়ারেন্টিনে থাকার বদলে শিল্পী বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে পার্টি করে বেড়িয়েছেন। দেশজুড়ে শুরু হয় বিতর্ক। এফআইআর দায়ের হয় শিল্পীর বিরুদ্ধে।

তারপর গঙ্গা-যমুনা দিয়ে অনেক জল বয়ে গিয়েছে। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন কণিকা কাপুর। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার একমাস পর রবিবার তাঁকে নিয়ে যাবতীয় বিতর্কের জবাব দিলেন কণিকা। বললেন, ইংল্যান্ড, মুম্বই কিংবা লখনউ, তাঁর সংস্পর্শে যাঁরা যাঁরা এসেছিলেন, তাঁদের কারও করোনা ধরা পড়েনি। প্রত্যেকের রিপোর্ট নেগেটিভ। তারপরই শিল্পী লেখেন, আমি এতদিন চুপ করে ছিলাম তার একমাত্র কারণ, আমি যেটা করেছি সেটা ভুল। কিন্তু দেখলাম এনিয়ে এমন সমস্ত মনগড়া তথ্য ঘুরছে যা কেবল মিথ্যেই নয় অসংবেদনশীলও। তাই বাধ্য হলাম নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে।

কোভিড ১৯ থেকে সেরে ওঠার পর কণিকা কাপুর ২১ দিন ঘরবন্দি হয়ে আছেন। গত মাসে লখনউতে একটি ডিনার পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন কণিকা। সেখানে হাজির ছিলেন বেশ কয়েকজন শীর্ষ রাজনৈতিক নেতা নেত্রী। কণিকার রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরই হইচই শুরু হয়ে যায়। আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়েই তুমুল মৌখিক আক্রমণের মুখে পড়েন বলিউডের গায়িকা। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের তরফে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআরও করা হয়। রবিবার পুরো ঘটনা প্রবাহ নিয়েই নিজের অবস্থান সাফ করলেন কণিকা কাপুর। এদিন তিনি ইনস্টাগ্রামে মা-বাবার সঙ্গে একটি ছবিও দিয়েছেন।

Comments
Loading...