TMC: ভোটের আগে বিজেপির মুখে বিবেকানন্দের নাম, মণীষীদের প্রকৃত সম্মান দিয়েছে মমতা সরকার

বাংলার মণীষীদের নিয়ে রাজনীতি করছে বিজেপি, দাবি ব্রাত্য বসুর

বাংলায় বিধানসভা ভোটকে সামনে রেখে মণীষীদের নিয়ে রাজনীতি করছে বিজেপি। ১০ থেকে ১২ জানুয়ারি বিবেক চেতনা উৎসবের কথা বলে কটাক্ষ মন্ত্রী ব্রাত্য বসুর।
সোমবার তৃণমূল ভবনের সাংবাদিক বৈঠক থেকে ব্রাত্যর কটাক্ষ, বিবেকানন্দকে নিয়ে ভুল তথ্য দেয় বিজেপি। রবীন্দ্রনাথের জন্মস্থান,নজরুলকে নিয়ে ভুল তথ্য দেয় গেরুয়া শিবির। অন্যদিকে বিবেকানন্দ ও রামকৃষ্ণকে যদি কেউ সত্যিকারের সম্মানীত ও মহিমান্বিত করেন তা একমাত্র মমতা ব্যানার্জিই করেছেন, দাবি তৃণমূলের। ব্রাত্যর কথায়, ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের পর সোভিয়েত সাম্রাজ্য চলেছে রাজ্যে। এর কারণে দেশজ মণীষীদের ভুলে ছিলাম আমরা। গত ১০ বছরে সেই মণীষীদের মমতার সরকার যেভাবে সম্মান প্রদান করছে তা অনন্য।

তৃণমূল মন্ত্রী আরও বলেন, যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনের নাম বদলে বিবেকানন্দ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন করেছে মমতা সরকার। বিবেকানন্দের শিমলার বাড়ি অধিগ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার। বাগবাজারে সারদা মায়ের বাড়িকে হেরিটেজ ঘোষণা করেছে। বাংলার সংস্কৃতি, কৃষ্টিকে আন্তর্জাতিক স্তরে উন্নীত করেছেন মমতা। এরপরেই বিজেপিকে নিশানা করে ব্রাত্য বলেন, এখন সংকীর্ণ রাজনীতির জন্য বিবেকানন্দের নাম নিচ্ছেন যাঁরা, তাঁরা কেন্দ্রীয় স্তরে কী করেছেন এই মণীষীদের জন্য? এতদিন কেন বাংলার মণীষীদের মনে পড়েনি তাঁদের।
প্রসঙ্গত, স্বামী বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ‘বিবেকার ডাকে’ কর্মসূচি নিয়েছে বঙ্গ বিজেপি। অন্যদিকে ১০-১২ জানুয়ারি রাজ্যজুড়ে বিবেক চেতনা উৎসব করছে তৃণমূল।

এই প্রেক্ষিতে বিজেপির বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ আনেন ব্রাত্য। শিকাগো থেকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও কেন মমতা ব্যানার্জি সেখানে যেতে পারলেন না, কিছুদিন আগে কেন তাঁর অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেট বাতিল হল প্রশ্ন তোলেন ব্রাত্য। তাঁর অভিযোগ, বিজেপির কলকাঠিতেই এগুলো বাতিল হয়েছে।

Comments
Loading...