অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে মৃত্যু! ঘটনাস্থল ব্রাজিল। ২৮ বছর বয়সী রিও দে জেনেইরোর তরুণের মৃত্যুতে অক্সফোর্ডের করোনা টিকা নিয়ে শুরু হল নয়া উদ্বেগ। যদিও ভ্যাকসিনের ট্রায়াল থামছে না বলেই খবর।

বুধবার ব্রাজিলের স্বাস্থ্যসংস্থা Anvisa মৃত্যুর কথা জানানোর পাশাপাশি জানায় অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ করা হবে না। তবে পরীক্ষা চলাকালীন মৃত স্বেচ্ছাসেবককে সত্যিকারের টিকা দেওয়া হয়েছিল না ‘প্লাসিব’ অর্থাৎ সত্যিকারের ভ্যাকসিনের দেওয়া হয়েছে, সেটাও খোলসা করা হয়নি। তবে CNN কে দেওয়া বিবৃতিতে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রুপ বা কন্ট্রোল গ্রুপে থাকা স্বেচ্ছাসেবকদের শারীরিক অবস্থার উপর পৃথক পৃথক স্বাধীনভাবে নজর রাখা হয়। এই ঘটনায় ট্রায়ালের নিরাপত্তা নিয়ে কোনও উদ্বেগের বিষয় নেই। তাছাড়া, ব্রাজিল সরকারও পরীক্ষা চালিয়ে যেতে আগ্রহী।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক মুখপত্র জানান, এ পর্যন্ত ট্রায়ালে ব্রাজিলের ১০ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর মধ্যে ৮ হাজার জনকে বেছে দেওয়া হয়েছে।

এখনও কোভিডের চিকিৎসায় কোনও দাওয়াই মেলেনি। তবে করোনার প্রতিষেধক অবিষ্কারে বিশ্বজুড়ে চলছে আপ্রাণ চেষ্টা। এই পরিস্থিতিতে অক্সফোর্ডের সম্ভাব্য প্রতিষেধক কতটা সুরক্ষিত হবে তা নিয়ে বড়োসড় প্রশ্ন তুলে দিল ব্রাজিলের তরুণ স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like