পারফরমেন্সের দোহাই দিয়ে আইটি ইউনিয়ন নেতাকে ছাঁটাই কগনিজেন্টের, তীব্র আলোড়ন

সম্প্রতি সংস্থাকে ঢেলে সাজানোর জন্য বিপুল সংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করেছে কগনিজেন্ট। এই প্রেক্ষিতে তথ্য প্রযুক্তি সংস্থার কর্মীদের অধিকার নিয়ে লড়াই করা ইউনিয়ন নেতা এলাভারাসন রাজার ছাঁটাই নিয়ে তোলপাড় শুরু হল কগনিজেন্টের অন্দরে। অভিযোগ, কর্মী স্বার্থ নিয়ে সংস্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জেরে জোর করে পাঁচ মাসের জন্য বসিয়ে দেওয়া হয়েছে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার তথা ইউনিয়ন নেতা এলাভারাসন রাজাকে। তবে কগনিজেন্টের পাল্টা দাবি, খারাপ পারফরমেন্সের জন্যই রাজাকে কাজ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
দ্য ইকনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদন বলছে, মঙ্গলবার সন্ধেবেলা ছাঁটাই সংক্রান্ত চিঠি হাতে পান এলাভারাসন। সংশ্লিষ্ট পেশায় আট বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এলাভারাসন রাজাকে গত কয়েকমাসে পারফরমেন্সের ভিত্তিতেই বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কগনিজেন্ট। রাজা ফোরাম ফর আইটি এমপ্লয়িজ (এফআইটিই) নামে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক। সংগঠনটি ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলির তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার কর্মীদের স্বার্থে কাজ করে। ফোরামের অভিযোগ, আইটি সেক্টরে কর্মী ছাঁটাই এবং কগনিজেন্টের বিভিন্ন কর্মচারী বিরোধী নীতির প্রতিবাদ করাতেই রাজার উপর শাস্তির খাঁড়া নেমে এসেছে।
সম্প্রতি সংস্থাকে নতুন করে সাজাতে এবং ব্যয়ে রাশ টানতে কয়েক হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা ঘোষণা করেছে কগনিজেন্ট। যা নিয়ে সংস্থার কর্মীদের একাংশের মধ্য ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। কলকাতায় তথ্যপ্রযুক্তি শিল্প তালুকে কগনিজেন্ট সহ আরও বেশ কয়েকটি সংস্থায় ছাঁটাইয়ের আশঙ্কা করছেন কর্মচারীরা। এর বিরুদ্ধে সিআইটিইউ প্রভাবিত কর্মী ইউনিয়ন গত বেশ কিছুদিন ধরে সংস্থাগুলির গেটে প্রচার চালাচ্ছে, চলছে লিফলেট বিলি। এ মাসেই ওই ইউনিয়ন ছাঁটাই সহ আরও বেশ কিছু ইস্যুকে সামনে রেখে একটি কনভেনশনের ডাক দিয়েছে। ইউনিয়ন নেতাদের দাবি, ভয়ভীতি ভেঙে তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার অনেক কর্মচারীই ওই কনভেনশনে যোগ দিতে চান। রাজার ছাঁটাই নিয়ে কলকাতার তথ্যপ্রযুক্তি তালুকে আলোড়ন পড়েছে। তবে কগনিজেন্ট এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, পারফরমেন্স ও ক্লায়েন্ট ফিডব্যাকের উপর ভিত্তি করে ৫ মাসের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে ওই কর্মীকে। সংস্থার চুক্তি ও শর্ত অনুযায়ীই এই পদক্ষেপ বলে সাফাই কগনিজেন্টের।

 

Comments
Loading...