Corona Latest News: ডোমেস্টিক এয়ারলাইনেও কড়াকড়ি শুরু, ভাইরাস-আতঙ্কে বাতিল বহু ট্রেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দেশের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলিতে শুরু হল কড়াকড়ি। এতদিন শুধু আন্তর্জাতিক বিমানগুলি থেকে আসা যাত্রীদের পরীক্ষা করা হচ্ছিল। এবার ডোমেস্টিক এয়ারলাইনসের জন্যেও বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল।

এদিকে মঙ্গলবার থেকে একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন বাতিল হয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৭৬ টি ট্রেন বাতিলের খবর পাওয়া গিয়েছে। আগামী দিনে আরও ট্রেন বাতিল হতে পারে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ একজন থেকে আর একজনের দেহে হওয়ার কারণে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, বিশেষতঃ বিমানের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আনা হয়েছে। কারণ করোনা প্রভাবিত দেশ থেকে প্রচুর মানুষের যাতায়াত মূলত বিমানেই। ইউরোপের অনেক দেশে বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থার ফলে অনেকে নিজেরাই সফর বাতিল করে দিয়েছেন।

এয়ারলাইনস ও এয়ারপোর্ট এগজিকিউটিভরা জানাচ্ছেন, টেম্পারেচার স্ক্রিনিং, স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা এবং ইনফেকশন না ছড়ানোর যাবতীয় ব্যবস্থা করছেন তাঁরা। তাছাড়া করোনা প্রভাবিত দেশগুলি থেকে আসা যাত্রীদের আলাদা করে পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে। বিমান কর্মীদের জন্য মাস্ক, গ্লাভসের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। যেহেতু সংক্রমণের আশঙ্কা তাঁদের ক্ষেত্রে বেশি।

তবে ডোমেস্টিক ফ্লাইটের ক্ষেত্রে এই ব্যবস্থা কার্যকর হয়নি এতদিন। এ প্রসঙ্গে ভিস্তারার প্রাক্তন চিফ স্ট্র‍্যাটেজি অ্যান্ড কমার্শিয়াল অফিসার সঞ্জীব কাপুর বলেন, শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক বিমান নয়, করোনা সংক্রমণ এড়াতে ডোমেস্টিক ফ্লাইটেও ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। কারণ, ইতিমধ্যেই এই ভাইরাস ভারতে ছড়িয়ে গিয়েছে।

 

আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা কমিয়ে আনা

ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন (ডিজিসিএ) একটি নতুন গাইডলাইনে জানিয়েছে, প্রত্যেক বিমান যেন ভালোভাবে পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত করা হয় ২৪ ঘণ্টা পরপর। সব বিমানে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করা, ক্রুদের জন্য প্রিকশান কিট রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইন্ডিগো, গো এয়ার জানিয়েছে, গ্লাভস ব্যবহার, যাত্রীদের থেকে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিমান সেবিকাদের।

যদি কোনও যাত্রীর শারীরিক অবস্থা সন্দেহজনক মনে হয় তাঁকে আইসোলেট করার কথা বলা হয়েছে।

এদিকে কেবিন ক্রু মেম্বারদের অভিযোগ, সার্কুলার জারি হলেও তাঁদের কোনও নির্দিষ্ট প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়নি এই প্যান্ডেমিক মোকাবিলায়। ডিজিসিএ কেবল তাঁদের মাস্ক, গ্লাভস পরা বাধ্যতামূলক করেছে।

আরও জানতে ক্লিক করুন, করোনা-আতঙ্কে পড়াশোনা বন্ধ বিশ্বের ৫০ কোটি পড়ুয়ার!

তবে ডোমেস্টিক ফ্লাইটের ক্ষেত্রে এমন নির্দেশিকা নেই। যদিও সব ফ্লাইটে অন্তত ৫০টি করে মাস্ক দেওয়া হচ্ছে যাত্রীদের। বিমান যাত্রীদের সঙ্গে যতটা সম্ভব কম কথোপকথন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কর্মীদের।

 

এয়ারপোর্টে সাবধানতা

ভারতীয় এয়ারপোর্টগুলিতে করোনা মোকাবিলায় যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, বেশিরভাগ যাত্রীই তাকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন। যদিও কিছু ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় ধরে পরীক্ষা এবং বিদেশিদের আলাদা করে পর্যবেক্ষণের অভিযোগ উঠছে।

দিল্লি এয়ারপোর্টে ৪০ শতাংশ বিদেশি যাত্রী আসেন। তাঁদের আলাদা করে স্ক্রিনিং করা হচ্ছে। মুম্বই বিমানবন্দরে ১০ টি স্ক্রিনিং কাউন্টার খোলা হয়েছে ১৫ টি করোনা প্রভাবিত দেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য। নির্দিষ্ট সময় অন্তর ফুড আউটলেট থেকে করিডর জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে যুদ্ধকালীন তৎপরতা এয়ারপোর্টগুলিতে।

এদিকে করোনা এড়াতে বাতিল হয়েছে বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার ট্রেন। কলকাতা মেট্রোয় গড়ে প্রায় দেড় লক্ষ যাত্রী কমেছে করোনা আতঙ্কে, এমনটাই মেট্রো কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর।

 

Comments
Loading...