সূর্যকান্ত মিশ্র: রাজ্যপাল তাঁর পদের মর্যাদাহানিকর কাজ করেছেন, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ছবি প্রচার নিয়ে ধনখড়ের বিরুদ্ধে সরব সিপিএম

অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করার জন্য রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে আরও সুর চড়াল সিপিএম। এবার দলের রাজ্য সম্পাদক বিঁধলেন রাজ্যপালকে। নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে সূর্যকান্ত মিশ্র লিখলেন, ধনখড় তাঁর পদের মর্যাদাহানিকর কাজ করেছেন।

অষ্টমীর সন্ধ্যায় অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে দেখতে তাঁর পাম অ্যাভেনিউয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল। সেখান থেকে ফিরে তিনি নিজস্ব ট্যুইটার অ্যাকাউণ্টে চারটি ছবি পোস্ট করেন। তার মধ্যে তিনটি ছবিতে দেখা যায়, বিছানায় শুয়ে রয়েছেন অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। সাধারণ মানুষকে তো বটেই, সচেতনভাবেই পার্টির শীর্ষ নেতৃত্বকেও ইদানীং এড়িয়ে চলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র তাঁকে মাঝে মাঝে দেখতে যান বটে, কিন্তু নিজের ব্যক্তিগত জীবনযাত্রা নিয়ে বরাবরই প্রচারমাধ্যমকে এড়িয়ে চলতে অভ্যস্ত বুদ্ধদেববাবুর এই ছবি দেখে রাজ্যজুড়ে লক্ষ-লক্ষ পার্টি নেতা-কর্মীর মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। বিভিন্ন স্তর থেকে পার্টি নেতৃত্বকে বলা হয়, এই ঘটনা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে। এরই মাঝে রবিবার সকালে দলের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম The Bengal Story কে জানান, অসুস্থ বুদ্ধদেববাবু ছবি প্রচার করে অন্যায় এবং অনৈতিক কাজ করেছেন রাজ্যপাল

রবিবার সন্ধ্যায় শেষ পর্যন্ত রাজ্যপালের বিরুদ্ধে সরব হলেন দলেন রাজ্য সম্পাদক। শালীনতার মাত্রা বজায় রেখে নিজস্ব ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে সূর্যকান্ত মিশ্র সমালোচনা করেন ধনখড়ের।

রাজ্যে সিপিএমের দুই শীর্ষ নেতার এই সমালোচনার কোনও জবাব অবশ্য সোমবার সকালে এই খবর লেখা পর্যন্ত রাজ্যপাল ধনখড় দেননি। যদিও তৃণমূল নেতৃত্ব বা রাজ্য সরকার তাঁর কোনও সমালোচনা করলে ধনখড় জবাব দিতে বেশি সময় নেন না। কিন্তু মহম্মদ সেলিম এবং সূর্যকান্ত মিশ্রর সমালোচনার জবাব তিনি দেন কিনা তাই দেখার।

 

(রাজ্যপাল ধনখড় ট্যুইটে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের যে ছবি পোস্ট করেছেন তা আমরা ব্যবহার করছি না)

 

 

Comments
Loading...