কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সাইকেল নিয়ে দিল্লির রাজপথে বারাসতের সৌরভ।

কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাইকেল র‍্যালি করে এক অভিনব প্রতিবাদে শামিল হলেন বারাসতের ২৭ বছরের তরুণ সৌরভ লাহিড়ী।  নেতাজি সুভাষ মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে স্নাতক এই যুবক এখন বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। গত ৯ মার্চ বারাসত থেকে সাইকেলে যাত্রা শুরু করেন এই তরুণ। তারপর টানা ১৪০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন দিল্লি। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্না হাজারের লড়াই কারোর অজানা নয়। সৌরভ নিজেকে আন্নার ভাব শিষ্য বলে পরিচয় দিতেই ভালোবাসেন। চলতি বছরে ২৩ শে মার্চ দিল্লির রামলীলা ময়দানে জন লোকপাল, দেশে কৃ্ষকদের সমস্যা,দুর্নীতিসহ একাধিক ইস্যুতে অনশন শুরু করেন আন্না। টানা ছয় দিন চলা সেই অনশন মঞ্চে আন্নার পাশে ছিলেন বারাসতের সৌরভ।
thebengalstory.com কে সৌরভ জানালেন, দেশে সাম্প্রদায়িক শক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে, ধর্মের নামে বিভাজন চলছে। কৃ্ষকদের যন্ত্রণা, সর্বোপরি কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্নীতি এই সবের বিরুদ্ধেই সাইকেল নিয়ে বেড়িয়ে পড়েছেন দুর্নীতিমুক্ত ভারতের স্বপ্ন নিয়ে। শুধুমাত্র সাইকেলে ১৪০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে থেমে গিয়েছেন তা নয়। রীতিমত স্মারক লিপি জমা দিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরে।
ছোট থেকেই সৌরভ অন্যদের থেকে একটু ব্যতিক্রমী। যে বয়সে ছেলেরা পড়াশোনা, ক্রিকেট, ফুটবল নিয়ে মেতে থাকে তখন কিশোর সৌরভ ভাবতেন পরিবেশ, সবুজকে রক্ষা করার কথা। কখনও তাই সাইকেল নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন শান্তিনিকেতন, আবার কখনও শিলিগুড়ি। ২০১১ সালে রামলীলা ময়দানে জন লোকপাল বিলের সমর্থনে আন্নার অনশন টেলিভিশনের পর্দায় দেখেছিলেন সৌরভ। তখনই ভেবেছিলেন নিজের আদর্শ খুঁজে পেয়েছেন। আগামী দিনে সুযোগ এলে দেখা করবেন নিজের আর্দশ ব্যক্তির সঙ্গে। অবশেষে ২০১৮ সালে সেই রামলীলা ময়দানেই দেখা হয় আন্নার সঙ্গে। মহারাষ্ট্রে নিজের কার্যালয়ে সৌরভকে ডেকে পাঠান আন্না হাজারে। খুব সম্প্রতি সৌরভ গিয়েছিলেন দিল্লি। তখন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল তাঁকে ফোন করেন। ২০১৮ সালে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং ছত্তিশগড়ে বিধানসভা নির্বাচন। এই তিন রাজ্যে সৌরভকে আপের হয়ে প্রচার করার অনুরোধ জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। কিন্ত প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে আসবেন কিনা তা নিয়ে এখনও দোলাচলে বারাসতের সৌরভ।

Comments
Loading...