আজ সেলুলয়েড বাদশা দেব আনন্দের মৃত্যুদিন, রইল তার ছবির বেশ কয়েকটি গানের লিস্ট

সিনেপ্রেমীদের মনে আজও অম্লান এভারগ্রিন দেব আনন্দ। আজকের দিনেই অসংখ্য ভক্তদের মন খালি করে চির বিদায় নেন দেব আনন্দ। আজ থেকে নয় বছর আগে এদিনেই তিনি প্রয়াত হন। কিন্তু প্রতি বছরই ৩ ডিসেম্বর তাঁকে স্মরণ করতে ভোলেন না তাঁর অনুগামীরা।  ১৯২৩ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর পঞ্জাবে জন্মগ্রহণ করেন ধরমদেব আনন্দ। পরে বলিউডে তাঁর নাম হয় দেব আনন্দ।  ১৯৪৬ সালে হাম এক হ্যায় সিনেমায় তাঁর হাতেখড়ি। এরপর একের পর এক হিট ছবি দিয়ে আমাদের প্রত্যেকের মন জিতে নেন।  সি আই ডি, গাইড, পেইং গেস্ট, জনি মেরা নাম এর মতো এক একটি ছবি আজও আমদের সবার প্রিয়। তাঁর অভিনয় জীবনে তিনি বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য পুরস্কারও তিনি পেয়েছেন।  ২০০১ সালে পদ্মভূষণ, ২০০২ সালে দাদা সাহেব ফালকে।  মৃত্যুর এতো বছর পরেও বেশ কয়েকটি গান আজও আমদের চোখে জল আনে, বারবার তাঁর কথাই মনে করায়। চলুন দেখে নিই সেই সব গান।

১। হাম হ্যায় রাহি পেয়ার কে:

কিশোর কুমারের গাওয়া এই গানে দেব আনন্দকে দেখা গিয়েছে উদাসীন ও স্বতঃস্ফূর্ত অবস্থায় তিনি গাড়ি চালিয়ে ছুটে চলেছেন। ন দো গেয়ারা সিনেমায় এই গানে দেখা গিয়েছে দেব আনন্দ জীবনের নানা সময়ের আবেগ ও সমস্যাগুলি মনে করছেন সেই গানের মাধ্যমে।

২। ম্যায় জিন্দগি কা সাথ নিভাতা চলা গয়া:

দেব আনন্দের হাম দোনো সিনেমার এই গানটি গেয়েছিলেন মহম্মদ রফি। সুর দিয়েছিলেন জয়দেব। এই ছবিটি দেব আনন্দের কেরিয়ারের একটি বিশেষ ছবি ছিল। যেখানে দেব আনন্দের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন আরও অনেক নাম করা অভিনেতা এবং অভিনেত্রী।

৩। ইয়ে দিল না হোতা বেচারা:

এই গানটি দেব আনন্দের কেরিয়ারের একটি অন্যতম সেরা গান। জুয়েল থিফ নামক ছবিতে এই গানের দৃশ্যে দেব আনন্দকে বেশ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। এমনকি কিশোর কুমারের গাওয়া এই গানেও তিনি দারুন লিপ মিলিয়েছেন।

 

 

Comments
Loading...