জি নিউজের সুধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করল সিপিএম শাসিত কেরল পুলিশ, অভিযোগ একটি সম্প্রদায়কে আক্রমণ

ফের বিতর্কে জি নিউজের এডিটর ইন চিফ ও নিউজ অ্যাঙ্কর সুধীর চৌধুরী। কয়েক মাস আগে ভুল সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগে সুধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। এবার রিপাবলিক টিভি চ্যানেলের সম্পাদক ও অ্যাঙ্কর অর্ণব গোস্বামীর মতো সুধীরের বিরুদ্ধেও বিশেষ সম্প্রদায়কে আক্রমণের অভিযোগে এফআইআর দায়ের হল। এফআইআর হল সিপিএম শাসিত রাজ্য কেরলে। গত বৃহস্পতিবার কেরল পুলিশ সুধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় এফআইআইআর দায়ের করেছে।
গত ১১ মার্চ জি নিউজের এডিটর ইন চিফ সুধীর চৌধুরীর মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতি হিংসাত্মক মন্তব্য ছড়ান বলে অভিযোগ করা হয়েছে এফআইআরে।
প্রসঙ্গত, ওই দিনের প্রাইম টাইম শোয়ে সুধীর চৌধুরী বর্ণনা করেন ভারতে কীভাবে হিন্দুদের উপর ‘জিহাদ’ চালাচ্ছে মুসলিমরা। তিনি দাবি করেন, কঠিন এবং নরম, দু’রকম জিহাদ চালানো হচ্ছে। এরপরে ডায়াগ্রাম করে বোঝাতে থাকেন ‘হার্ড জিহাদ’ বা কঠিন জিহাদ হল ‘পপুলেশন জিহাদ’ ও ‘লভ জিহাদ’। আর ‘সফট জিহাদ’ হচ্ছে ‘অর্থনৈতিক জিহাদ’, ‘ইতিহাস জিহাদ’ এবং ‘মিডিয়া জিহাদ’। এরপর তিনি ‘জমি জিহাদ’ কী তার বর্ণনা দিয়ে অভিযোগ করেন, মুসলিমরা জমি, জঙ্গল ও নদীরও ধর্মান্তর করতে উদ্যত হয়েছে।
টিভি শোয়ে সাংবাদিকের এই মন্তব্য মুসলিম সমাজের প্রতি ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টায় করা হয় বলে কেরল পুলিশ এফআইআরে অভিযোগ করেছে।
অভিযুক্ত সাংবাদিক-অ্যাঙ্কর অবশ্য ট্যুইটারে পাল্টা অভিযোগ করেছেন, অস্বস্তিকর বাস্তব চিত্র তুলে ধরার জন্য কেরল পুলিশ এই এফআইআর দায়ের করেছে। তিনি ট্যুইটারে লেখেন, সত্যি তথ্য তুলে ধরার জন্য আমার পুলিৎজার পুরস্কার। ছদ্ম-ধর্মনিরপেক্ষতা না দেখালে কী হবে সেটাই প্রমাণ এই এফআইআর। মিডিয়ার উদ্দেশে এটা পরিষ্কার বার্তা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন জি নিউজের এডিটর ইন চিফ।

এদিকে ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগে আর এক খবরের চ্যানেল নিউজ ১৮ হিন্দির অ্যাঙ্কর অমিশ দেবগনের বিরুদ্ধেও একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে মুম্বইয়ের একটি থানায়।

Comments
Loading...