কেরলে চালু হল দেশে প্রথম সৌরশক্তি চালিত ট্রেন!

কয়লা-স্ট্রিম ইঞ্জিন, ইলেকট্রিক, ডিজেলের পর এবার সৌরশক্তিতে চলবে ট্রেন। সোমবার কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের হাত ধরে ভারতের প্রথম সৌরচালিত মিনিয়েচার ট্রেনের যাত্রা শুরু হল ভেলি ট্যুরিস্ট ভিলেজে।

বিশেষত ছোটদের আকর্ষণ করার লক্ষ্যে চালানো এই বিশেষ ট্রেনটিতে একসঙ্গে ৪৫ জন যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন। সৌর বিদ্যুতে চলা এই ছোট্ট ট্রেনের নিজস্ব টানেল, স্টেশন এবং একটি টিকিট অফিস সহ রেল ব্যবস্থার যাবতীয় বৈশিষ্ট রয়েছে। আন্তর্জাতিক মানের এই মিনিয়েচার ট্রেন সহ ভেলি ট্যুরিস্ট পার্কের সংস্কারে খরচ হচ্ছে প্রায় ৬০ কোটি টাকা। এই প্রকল্পেরই অংশ হিসেবে মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন একটি ‘আর্বান পার্ক’ ও একটি সুইমিং পুলের উদ্বোধন করেছেন ভেলির ইকোফ্রেন্ডলি ট্যুরিস্ট ভিলেজে। ভেলি লেক ও আরব সাগরের উপকণ্ঠে সোলার মিনিয়েচার ট্রেনটি আলাদা করে পর্যটকদের নজর কাড়বে বলে আশাবাদী কেরল সরকার। পিনারাই বিজয়ন তাঁর অনলাইন ভাষণে জানান, আড়াই কিলোমিটার ক্ষুদ্রাকার রেলপথে চলা এই পরিবেশবান্ধব সৌরচালিত ট্রেনে চেপে প্রকৃতিকে আরও নিবিড়ভাবে অনুভব করবেন পর্যটকরা। ১০ কোটি অর্থ ব্যয়ে তৈরি এমন সোলার মিনিয়েচার ট্রেন প্রোজেক্ট ভারতে এই প্রথম বলে উল্লেখ করেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী। তিনি আরও জানান, আগেকার স্টিম ইঞ্জিনের মতো কৃত্রিম বাষ্প ছেড়ে ছুটে যাবে এই ট্রেন। যা পর্যটকদের মধ্যে নস্ট্যালজিক অনুভূতি জাগাবে। তাছাড়া রেল স্টেশনটিও তৈরি হয়েছে প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী নকশা ও শৈলিতে।

তাছাড়া পর্যটক সহায়তা কেন্দ্র, কনভেনশন সেন্টার, আর্ট ক্যাফেও তৈরি হচ্ছে ভেলি ট্যুরিস্ট ভিলেজে। পিনারাই বিজয়নের কথায়, ভেলি ট্যুরিস্ট স্পটের এই নয়া চেহারা বিশ্বব্যাপী পর্যটকদের চোখ টানবে। কেরলের পর্যটন মন্ত্রী কাদাকমপলুয়ে সুরেন্দ্রন উল্লেখ করেন, কেরল সরকার পর্যটন খাতের জন্য এবার প্রায় ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। যার মধ্যে ভেলিতেই ৬০ কোটি টাকার প্রকল্প করার প্রশাসনিক অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই ২০ কোটি টাকার কাজ হয়ে গিয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাসের মধ্যেই সব কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে আশাবাদী তিনি।

Comments
Loading...