পেট্রপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির জেরে নজিরবিহীন বিক্ষোভ, দাঙ্গার পরিস্থিতি ফ্রান্সে, জারি হতে পারে জরুরি অবস্থা

পেট্রলের লাগামছাড়া মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ফ্রান্স। গত কয়েক দিন ধরেই তেলের মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে চলছে বিক্ষোভ। কিন্তু তা হিংসাত্মক হয়ে উঠল শনিবার। জানা গেছে, শনিবার সেন্ট্রাল প্যারিসের একাধিক জায়গায় হিংসা ছড়ায়। বিক্ষোভের মাঝেই মুখোশে মুখ ঢেকে, অস্ত্র হাতে চড়াও হয় একদল বিক্ষোভকারী। ভাঙচুর চালিয়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় আশেপাশের কয়েকটি বাড়িতে ও রাস্তার পাশে রাখা গাড়িতে। প্যারিসে প্রায় অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলা চলে। সরকারের আশঙ্কা, দেশে দাঙ্গার পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলির দাবি, দেশজোড়া এরকম অশান্তি গত কয়েক বছরের মধ্যে দেখা যায়নি। গত এক দশকের মধ্যে শনিবারই ফ্রান্স সব থেকে বড় নাগরিক বিক্ষোভের সন্মুখীন হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকে। এই অবস্থায় দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তার ইঙ্গিত মিলেছে রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল মাঁকর প্রশাসনের তরফেও। সরকারের তরফে এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, রবিবার বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য জরুরি বৈঠক ডেকেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমান্যুয়েল মাঁকর। সেখানে দেশে জরুরি অবস্থাসহ সম্ভাব্য সকল সমাধান সূত্র নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা।
মূলত সরকারের আর্থিক সিদ্ধান্ত, যার ফলে লাগামছড়া মূল্যবৃদ্ধি ও পেট্রোপণ্যে অতিরিক্ত কর বসানোর কারণেই এই নাগরিক বিক্ষোভের মুখে প্রশাসন, তা সকলেই মানছেন। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ইতিমধ্যেই আলোচনায় বসার ইঙ্গিত দিয়েছে প্রশাসন। কিন্তু তাতে পরিস্থিতি কতটা নিয়ন্ত্রণে আসে সেদিকে তাকিয়ে সকলে। অন্যথায় সম্ভবত জরুরি অবস্থাই জারি হতে পারে ফ্রান্স।

Comments
Loading...