গায়ে গোবর মাখলে আর গোমূত্র খেলেই ছুঁতে পারবে না করোনাভাইরাস, নিদান হিন্দু মহাসভার প্রধানের

বিশ্বজুড়ে বাড়ছে নোবেল করোনাভাইরাসের আতঙ্ক। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’ গোটা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা জারি করেছে। আতঙ্ক ছড়িয়েছে ভারতেও। এর মধ্যে করোনাভাইরাসের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার উদ্ভট নিদান দিয়ে বসল ভারতের হিন্দুত্ববাদী সংগঠন হিন্দু মহাসভা।

শুক্রবার হিন্দু মহাসভার সভাপতি স্বামী চক্রপানি মহারাজ বলেন, গরুর মূত্র এবং গোবর ব্যবহার করে করোনাভাইরাস থেকে মুক্তিলাভ সম্ভব। তিনি জানান, করোনাভাইরাস থেকে ভারত-সহ গোটা বিশ্বকে মুক্ত করার জন্য বিশেষ যজ্ঞেরও ব্যবস্থা করবে হিন্দু মহাসভা। চক্রপানি মহারাজ বলেন, কেউ যদি গোমূত্র খায় আর শিবের মন্ত্র জপ করতে করতে গায়ে গোবর মাখে তাহলে করোনাভাইরাস তাঁর দেহে প্রবেশ করতে পারবে না।
চিন থেকে উৎপত্তি হওয়া এই ভাইরাসে ইতিমধ্যেই সে দেশে প্রায় দুশো জনের বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন। এই ভাইরাসে আক্রান্ত সে দেশের প্রায় দেড় হাজার মানুষ। আতঙ্কিত ভারতও। ইতিমধ্যেই কেরলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগীর সন্ধান মিলেছে। দিল্লির রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে দু’জনকে। কলকাতা-সহ দেশের অন্যান্য শহরে বেশ কয়েকজনকে এই রোগে আক্রান্ত সন্দেহে নজরদারিতে রাখা হয়েছে। তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হচ্ছে। ভারত থেকে বিশেষ বিমান পাঠানো হয়েছে চিনে। উহান প্রদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের সেই বিমানে করে এদেশে নিয়ে আসা হবে। জানা গিয়েছে এই ভারতীয় নাগরিকদের দেশে নিয়ে আসার পর তাঁদের দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে বিশেষ আইসোলেশন ওয়ার্ডে ১৪ দিন বিশেষ নজরদারির মধ্যে রাখা হবে। ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া এবং মালয়েশিয়াতেও মিলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খোঁজ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’ রীতিমতো উদ্বিগ্ন এই নিয়ে। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস নিয়ে চিকিৎসকরাও  যথেষ্ট চিন্তিত। যেহেতু এখনও আবিষ্কৃত হয়নি এই ভাইরাসের কোনও ওষুধ বা টিকা।
এর আগে গরুর গায়ে হাত দিলে ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক থাকে, গোমূত্র খেলে ক্যান্সার ভালো হয়ে যায় বলে দাবি করেছিলেন সাধ্বী প্রজ্ঞার মতো বিজেপির নেতা-নেত্রী। দলের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ আবার দাবি করেছিলেন, গরুর দুধে নাকি সোনা রয়েছে। এবার সেই  তালিকায় নয়া সংযোজন চক্রপানি মহারাজ।

Comments
Loading...