ডেরেক ও’ব্রায়েন: ১৩ বছর বয়সে কলকাতায় ভিড় বাসে আমাকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছিল, তখন ঘটনার কথা কাউকে বলতে পারিনি

‘টেনিস প্র্যাকটিসের পর বাড়ি ফেরার জন্য একদিন ভিড় বাসে উঠেছিলাম। পরনে ছিল হাফ প্যান্ট আর টি-শার্ট। সেই ভিড়ের মধ্যেই একজন লোক আমাকে যৌন হেনস্থা করে। তখন আমার ১৩ বছর বয়েস। বুঝতে পারিনি লোকটা কে, কিন্তু হাফ প্যান্ট, টি-শার্ট পরা অবস্থায় ভিড় বাসে আমাকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছিল। তারপর ৬-৭ বছর, ৮ বছর আমি এই ঘটনার কথা কাউকে জানাতে পারিনি’।
ভারতীয় সংসদের উচ্চ কক্ষে দাঁড়িয়ে, ১৩ বছর বয়সে নিজের যৌন হেনস্থার অভিজ্ঞতার কথা বলছেন এক সাংসদ। বুধবার এমনই নজিরবিহীন এক ঘটনার সাক্ষী হল রাজ্যসভা। শিশুদের যৌন হেনস্থা প্রতিরোধ আইন বা পস্কো আইনে প্রয়োজনীয় বদলের পক্ষে বলতে উঠে শৈশবের ভয়ানক অভিজ্ঞতার কথা সর্বসমক্ষে জানালেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। বুধবার রাজ্যসভায় বললেন, ১৩ বছর বয়সে কলকাতার ভিড় বাসে যে অভিজ্ঞতা তাঁর হয়েছিল, ভবিষ্যতে কোনও কিশোর, কিশোরী কিংবা শিশুর ক্ষেত্রে এমন ঘটনা রুখতে হবে। এটাই আইনের মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত। আর তার জন্য সবার দরকার এই ধরনের ঘটনাগুলো আরও প্রকাশ্যে আনা। যাতে এই ধরনের ঘটনার কথা বলতে কেউ লজ্জা না পায়। তাঁর আহ্বান, শিশুকে নিরাপদ শৈশব দিতে ভয়, সঙ্কোচ কাটিয়ে এগিয়ে সবাই আসুন। হেনস্থার ঘটনাগুলো নিয়ে কথা বলুন আরও বেশি করে।
ডেরেক বলেন, কোনও শিশুর ক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা শুরু হয় তার বাড়ি থেকে। তাই কখনওই হেনস্থার কথা আমরা লোকমুখে স্বীকার করে উঠতে পারি না। তিনি আরও বলেন, বাসের ওই ঘটনার ভয়ঙ্কর প্রভাব থেকে বেরোতে আমার অনেকটা সময় লেগে গিয়েছিল। লজ্জায় কাউকে বলতে পারিনি। অনেক বছর পর বাড়িতে ঘটনার কথা জানাই। আজ মনে হল, তা ভারতেরও জানা উচিত। তৃণমূল সাংসদ বলেন, যৌন হেনস্থার অভিজ্ঞতা যতই খারাপ হোক না কেন, তাকে চেপে না রেখে প্রকাশ করা উচিত। প্রকাশ্যে এই অভিজ্ঞতার আলোচনা শুরু না হলে, সচেতনতা ফিরবে না, শিশুরাও কোনওদিন লজ্জা কাটিয়ে উঠে যৌন হেনস্থার কথা বলার সাহস পাবে না। কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি ডেরেকের মন্তব্যকে সম্মতিসূচক হাততালি দিয়ে সমর্থন জানান এবং বলেন, ‘একজন সাংসদ আজ যে অভিজ্ঞতার কথা আমাদের সঙ্গে ভাগ করে নিলেন তা আজ থেকে ৪৬ বছর আগের। এটা থেকেই বোঝা যায় যৌন হেনস্থার ঘটনা একজন শিশুর মনে কী সাংঘাতিক প্রভাব ফেলে’।
বুধবার রাজ্যসভায় সর্বসম্মতিক্রমে প্রোটেকশন অফ চিলড্রেন ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০১৯ বা পস্কো বিল পাশ হয়। নতুন বিলে শিশুদের উপর যৌন হেনস্থার শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি অন্যান্য কড়া শাস্তির সংস্থান রাখা হয়েছে। এবার বিলটি লোকসভায় পেশ করা হবে।

Comments
Loading...