ভারতীয় সেনা কর্মীর যোগ হিজবুল মুজাহিদিনে

বাড়িতে ছুটি কাটাতে গিয়ে জঙ্গিসংগঠনে নাম লেখাল একজন ভারতীয় জওয়ান। কাশ্মিরী যুবক মির ইদ্রিশ আলি কয়েকদিনের জন্য নিজের বাড়ি সোপিয়ানে গিয়েছিলেন। তারপরই তিনি হিজবুল মুজাহিদিনে যোগদান করেন। একে ৪৭ হাতে মির ইদ্রিশের সুলতান একটি ছবি এখন সোস্যাল সাইটে ভাইরাল। সেনাবাহিনী মতে, গত ন’মাসে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ঘটল এই ধরনের ঘটনা। কাশ্মীরের স্পেশাল সুপারিটেন্ডেন্ট অব পুলিশ, আম্বারকর শ্রীরাম দিনকর বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন। জানা যায়,বিএসসি দ্বিতীয়বর্ষের পর সেনাবাহিনীতে যোগদান করেছিলেন সুলতান। ১২ জম্মু কাশ্মীর ইনফ্যান্ট্রির হয়ে বহুদিন বিহারে মোতায়েন ছিলেন তিনি। গত শনিবার থেকেই সুলতানের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সুলতানের বাবা তাঁর নামে রবিবার থানায় একটি মিসিং ডায়েরিও করেছিলেন। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই পুলিশ এদিন জানায়, সুলতান স্থানীয় যুবকদের সঙ্গে নিয়ে জঙ্গি সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনে যোগ দিয়েছেন। বছর দুয়েক আগে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগদান করেছিলেন সুলতান। সেনা ও পুলিশের তরফে মনে করা হচ্ছে, সোপিয়ানের সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষের পরই সুলতান হিজবুল মুজাহিদিনে যোগদান করেছেন। গত ১ এপ্রিল সোপিয়ান সংঘর্ষে প্রাণ হারান ১২ জন জঙ্গি সহ ৪ জন স্থানীয় বাসিন্দা। গত বছর মে মাসে জম্মু কাশ্মীর পুলিশের এক সদস্য সইদ নভীদ মুস্তাক শাহ একটি গোপনীয় ফাইলসহ এই জঙ্গিসংগঠনে যোগ দেন। জুলাইতে জরুর আহমেদ নামে ১৭৩ টেরিটোরিয়াল আর্মির জনৈক জওয়ানও হিজবুল মুজাহিদিনে যোগদান করেছিলেন,তারপর আবারও এই ঘটনা নিঃসন্দেহে সেনাবাহিনীকে উদ্বিগ্ন করবে। একের পর এক সেনা জওয়ানেরা কেন জঙ্গি সংগঠনে এভাবে যোগদান করছে তা খতিয়ে দেখছে কতৃপক্ষ।

Comments
Loading...