আইপিএল বেটিং কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার কথা কবুল করলেন সলমন খানের ভাই আরবাজ।

শেষ পর্যন্ত পুলিশি জেরার মুখে ভেঙে শনিবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) বেটিংয়ে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে নিলেন  বলিউড সুপারস্টার সলমন খানের ভাই আরবাজ খান। ২০১৭ সালের আইপিএল বেটিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে মুম্বইয়ের থানে পুলিশ গত ১৫ মে গ্রেফতার করে জনৈক সোনু জালানসহ তিন বুকিকে। এই বুকিদের পাণ্ডা সোনুকে ম্যারাথন জেরা শুরু করে থানে পুলিশ জানতে পারে আরবাজ খানের কথা। শুধু তাই নয় জেরার মুখে সোনু আরও জানায়, পাঁচ বছর ধরে তাঁর সঙ্গে আরবাজের পরিচয় রয়েছে। এরপরই থানে পুলিশের অপরাধ দমন শাখা শনিবার সকালে ডেকে পাঠায় আরবাজকে। সোনুর মুখোমুখি বসিয়ে শুরু হয় জেরা।
সূত্রের খবর প্রায় দু’কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা বেটিং কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে আরবাজ খানের বিরুদ্ধে। থানের পুলিশ কমিশনার পরম বীর সিংহ সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, জেরা পর্ব এখনও চলছে, তাই তদন্তের স্বার্থে বেশি কিছু বলা সম্ভব নয়। ২০১৭ সালের আইপিএলে এই গড়াপেটা হয়েছিল। সূত্রের খবর, বলিউডের বেশ কিছু সেলিব্রিটিও যুক্ত রয়েছেন এই বেটিং চক্রের সঙ্গে। আইপিএল  কমিশনার রাজীব শুক্লা সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে, প্রয়োজনে সবরকম সহযোগিতা করা হবে। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) এবং ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) জানিয়েছে, পুলিশ চাইলে তদন্তে সব রকম সহযোগিতা করা হবে। সদ্য শেষ হয়েছে ২০১৮ সালের আইপিএল। সেই রেশ কাটতে না  কাটতেই  ফের প্রকাশ্যে এল বেটিং কেলেঙ্কারি।

Comments
Loading...