অভিনন্দনকে ভারতে ফেরানোর সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে পাক হাইকোর্টে মামলা, খারিজ প্রধান বিচারপতির

ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তে পাকিস্তান সরকারের বিরোধিতা করে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে হলফনামা দাখিল করেন পাকিস্তানের আইনজীবী মহম্মদ শোয়েব রেজ্জাক। তাঁর যুক্তি, ভারতীয় উইং কমান্ডারকে ভারতে প্রত্যর্পণের সিদ্ধান্ত পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এভাবে নিতে পারেন না। যদিও তাঁর এই পিটিশন খারিজ করে দিয়েছে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট।
গত বুধবার ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানি সেনার হাতে আটক হন। বৃহস্পতিবার পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘোষণা করেন, শান্তির বার্তা দিতে অভিনন্দনকে ভারতে ফিরিয়ে দেবেন তাঁরা। এই ঘোষণার পরেই ইসলামাবাদ হাইকোর্টে হলফনামা জমা দেন আইনজীবী মহাম্মদ শোয়েব রেজাক্ক।
আইনজীবী মহাম্মদ শোয়েব রেজ্জাক তাঁর পিটিশনে জানান, ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির যৌথ অধিবেশনে ভারতীয় বায়ুসেনা আধিকারিককে দেশে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আইনজীবী রেজ্জাকের যুক্তি, এই ঘোষণা করতে গিয়ে পাকিস্তানের সাধারণ মানুষের ইচ্ছাকে উপেক্ষা করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। হলফনামাতে আইনজীবী রেজ্জাকের আরও দাবি, অভিনন্দন বর্তমান পাকিস্তানের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে পাক সীমানায় প্রবেশ করেন। তাই তাঁকে ভারতে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী একা নিতে পারেন না। ভারতীয় উইং কমান্ডারের বিচার হওয়া উচিত পাক আদালতে বলেও আবেদন তাঁর।
শুক্রবার আইনজীবী শোয়েব রাজ্জাকের এই হলফনামার প্রেক্ষিতে ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি আতাহার মিনাল্লাহ জানান, মজলিশ-ই-শুরার (পাকিস্তানের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি) যৌথ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী এই সিদ্ধান্ত নিলেও, উপস্থিত কোনও সদস্যই তার বিরোধিতা করেননি। আদালতের যুক্তি, অভিনন্দন বর্তমানের ইস্যুটি বিদেশ নীতি, প্রতিরক্ষা ও পাকিস্তানের নিরাপত্তা বিষয়ক। তাই এ বিষয়ে আদালত হস্তক্ষেপ করবে না। এরপরেই ইসলামাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি এই মামলা খারিজ করে দেন।

Comments
Loading...