সচিনের পথ ধরে ফ্যাশন স্টার্টআপ ইউনিভার্সাল স্পোর্টসবিজে ১৯ কোটি টাকা বিনিয়োগ কোহলির

শোনা যায়, ম্যালকম মার্শাল টেস্ট খেলে পাওয়া টাকা দিয়ে একটি নৌকা কিনতে চেয়েছিলেন। পারেননি। সময় বদলেছে। সেই সঙ্গে জোট গতিতে ক্রিকেটে বেড়েছে অর্থের আনাগোনা। বিপুল অর্থের যুগে ক্রিকেটারদের বিনিয়োগ এখন স্টার্টআপ কেন্দ্রীক।

বেঙ্গালুরুর ফ্যাশন স্টার্টআপ ইউনিভার্সাল স্পোর্টসবিজ প্রাইভেট লিমিটেড বা USPL এ বিপুল বিনিয়োগ করেছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। একই সংস্থায় বিনিয়োগ করেছে কোহলির প্রতিনিধিত্বকারী স্পোর্টস ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম কর্নারস্টোন স্পোর্টস এলএলপিও। কেন্দ্রীয় সরকারের কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রক সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, দুয়ে মিলে মোট ১৯.৩ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছেন বিরাট কোহলি এবং কর্নারস্টোন। তারমধ্যে বিরাট কোহলি একা দিয়েছেন ১৩ কোটি ৭৬ লক্ষ টাকা এবং কর্নারস্টোনের বিনিয়োগ ৫ কোটি ৫৮ লক্ষ টাকা।

তবে এখানেই শেষ নয়। বিশ্বের অন্যতম ধনী ক্রিকেটার বিরাট কোহলির বিনিয়োগ আছে লন্ডনের সোশ্যাল মিডিয়া স্টার্টআপ স্পোর্ট কনভোতে। যা মূলত একটি মোবাইল অ্যাপ। যেখানে তারকাদের সঙ্গে ফ্যানেদের সরাসরি যোগাযোগ হয়। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভারতীয় অধিনায়ক আড়াই কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন আরেক স্টার্টআপ ডিজিট ইনস্যুরেন্সে। এখানে স্ত্রী অনুষ্কা এবং কর্নারস্টোনেরও বিনিয়োগ আছে বলে সূত্রের খবর। কিন্তু একসঙ্গে এত বড়ো লগ্নি এই প্রথম।

ইউনিভার্সাল স্পোর্টসবিজের সঙ্গে কোহলির সম্পর্ক আজকের নয়। ২০১২ সালে তৈরি হওয়া বেঙ্গালুরুর অঞ্জনা রেড্ডির স্পোর্টসবিজ বিরাট কোহলির নিজস্ব ফ্যাশন ব্র্যান্ড Wrogn এর বিপণনের কাজ করেছিল। ক্রিকেট ও গ্ল্যামার জগতে পরিচিত নাম স্পোর্টসবিজের মূল কাজ হল, তারকা কেন্দ্রীক ফ্যাশন ব্র্যান্ডের বিপণন। এই সূত্রেই তাদের Imara ব্র্যান্ডের অ্যাম্বাসেডর শ্রদ্ধা কাপুর, Ms Taken রেঞ্জের মুখ কৃতি সানন। ক্রিকেটের সঙ্গে ইউনিভার্সাল স্পোর্টসবিজের সম্পর্ক আরও একটু পুরনো। একই স্টার্টআপে প্রথম বিনিয়োগ ছিল সচিন তেণ্ডুলকরের। তাঁর পথ ধরেই এবার বিপুল বিনিয়োগ কোহলির।

এই সূত্রেই বিরাট কোহলির জন্য রয়েছে সতর্কবার্তা। শোনা যাচ্ছে সচিনের বিনিয়োগ ছিল Smaaash নামে একটি স্টার্টআপ গেমিং কোম্পানিতে। করোনা কালে বিপুল লোকসানের মুখ দেখে তা চিরতরে বন্ধ হয়েছে। অতএব সাধু সাবধান!

Comments
Loading...