সব লোকাল ট্রেন চালানোর অনুমতি দিল না রেল! চলবে হাওড়া ডিভিশনের কিছু বাছাই ট্রেন

রেল পরিষেবা চালু হলেও সব ট্রেনই একসাথে চালুর কোনও পরিকল্পনা নেই বলে জানা গিয়েছে রেল সূত্রে। আগামী বুধবার, ১১ নভেম্বর থেকে রাজ্যে চালু হচ্ছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। হাওড়া ডিভিশনে চলবে ১০১টি লোকাল ট্রেন। সেই ডিভিশন থেকে জানা গেছে, মোট ৯টি শাখায় রেল চলাচল করবে। রেল সূত্রে খবর, আগে যেখানে ৪৩৮ টি ট্রেন চলত সেখানে এখন ১০১ টি লোকাল ট্রেন চলবে। তবে যদি যাত্রী চাহিদা বাড়ে তাহলে সংখ্যা পুনরায় বাড়ানো হবে।

হাওড়া থেকে বর্ধমান শাখায় ট্রেন চলাচল করবে। আগে চলত ৮৩টি। এখন চলবে ২৬টি। হাওড়া থেকে কাটোয়া পর্যন্ত সাধারণ সময়ে ট্রেন চলে ১৮টি। এখন সে জায়গায় চলবে ৮টি। ব্যান্ডেল থেকে কাটোয়া সাধারণ সময়ে ট্রেন চলে ১৮টি। এখন চলবে ৮টি। হাওড়া থেকে গোঘাট লাইনে আগে ১০টি ট্রেন চলত। এখন সে জায়গায় ৬টি চলবে। হাওড়া থেকে তারকেশ্বর লাইনে আগে অনেকগুলি ট্রেন চলত, সেই সংখ্যাটা ৪৩। এখন ট্রেন চলবে ১৩টি। হাওড়া থেকে বর্ধমান মেইন লাইনে সাধারণ সময়ে ট্রেন চলে ৪৬টি। এখন ট্রেন চলবে ১২টি। হাওড়া থেকে বর্ধমান কর্ড লাইনে ট্রেন চলে ৪৮টি। এখন ট্রেন চলবে ১৪টি। বর্ধমান থেকে কাটোয়া শাখায় ট্রেন চলে ১২টি। এখন চলবে ৪টি। বর্ধমান থেকে নৈহাটি সাধারণ সময়ে ট্রেন চলে ৩৮টি। এখন ট্রেন চলবে ১০টি। সব মিলিয়ে হাওড়া থেকে ১০১টি ট্রেন চলাচলের নির্দেশিকা জানানো হয়েছে।

এবার আসা যাক সময় সূচির কথায়। ভোর ৫টা ১৪ থেকে রাত ১১টা ১৫ পর্যন্ত ট্রেন চলবে। ব্যান্ডেল থেকে মিলবে ভোর ৩টে ০৭ থেকে সন্ধ্যা ৭টা ৩০ অবধি। হাওড়া-বর্ধমান-হাওড়া মেইন শাখায় হাওড়া থেকে ট্রেন চলবে সকাল ৬টা ২০ থেকে রাত ১০টা ১০ অবধি। বর্ধমান থেকে মিলবে ভোর ৩টে ০৫ থেকে সন্ধ্যা ৭টা ৫৫ অবধি। কর্ড শাখায়, হাওড়া থেকে ছাড়বে প্রথম ট্রেন সকাল ৬টা ১০এ। শেষ ট্রেন ১০টা ১০ মিনিটে। বর্ধমান থেকে ছাড়বে প্রথম ট্রেন ভোর ৩টের সময়। সন্ধ্যায় ছাড়বে ৭টা ২০ মিনিটে।
প্রসঙ্গত, ট্রেন চলাচল শুরু হলেও এখনই যাত্রীদের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে সব ট্রেন চালানোর কথা ভাবছে না রেল মন্ত্রক। তবে রেলের তরফ থেকে বলা হয়েছে যদি যাত্রীদের চাহিদা বাড়ে তাহলে আবার আগের মতই রেলের সংখ্যা বহাল থাকবে। তবে এখন কিছু দিন এই সময়সূচি বজায় থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

Comments
Loading...