মোদীর নেতৃত্বাধীন নেতাজি কমিটিতে মমতা-বুদ্ধদেব, সৌরভ-শুভেন্দু

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন নেতাজি কমিটিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বাঙালি ব্যক্তিত্বের ছড়াছড়ি

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উৎযাপনে গঠিত হল কেন্দ্রের উচ্চপর্যায়ের কমিটি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন ৮৫ জনের এই কমিটির সদস্যদের মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রের প্রতিষ্ঠিত ও বিখ্যাত বাঙালি ব্যক্তিত্বের সংখ্যাই বেশি। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে মোদীর নেতৃত্বাধীন নেতাজি কমিটিতে রয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তেমনি রাখা হয়েছে প্রাক্তন ক্রিকেটার ও বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি থেকে তৃণমূলত্যাগী বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীকেও।
শুক্রবার কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এই কমিটির কথা জানানো হয়েছে। জানানো হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কমিটির চেয়ারম্যান স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী মোদী। বাকি ৮৪ জন সদস্যের মধ্যে যেমন মমতা, বুদ্ধবাবুর মতো ব্যক্তিত্বকে রাখা হয়েছে তেমনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের মধ্যে রয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন, কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এছাড়া কমিটিতে বাঙালি ব্যক্তিত্বের সংখ্যাই বেশি।
এই কমিটিতে যেমন বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী, বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গাঙ্গুলিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, তেমনি রয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বহরমপুরের সাংসদ ও লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী।
কমিটিতে আছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী ও বর্ধমান পূর্বের সাংসদ সুনীল মণ্ডল। তবে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার আগে বিধায়ক পদ ছেড়ে দিলেও বিজ্ঞপ্তিতে শুভেন্দুকে রাজ্যের বিধায়ক হিসেবেই উল্লেখ করা হয়েছে। যা থেকে মনে করা হচ্ছে এই কমিটির সদস্যদের নাম বেশ কিছুদিন আগেই ঠিক করা হয়েছিল।
দল, মত ও বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টদের নিয়ে এরকম কেন্দ্রীয় কমিটি এর আগে হয়নি বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। প্রাক্তন ক্রিকেটার সৌরভের গাঙ্গুলির মতো নেতাজি কমিটিতে রয়েছেন ভারতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সুব্রত ভট্টাচার্য, সঙ্গীতশিল্পী এআর রহমান। আছেন বলিউড তারকা মিঠুন চক্রবর্তী, কাজল দেবগনের মতো ব্যক্তিত্বরা।
কেন্দ্রের নেতাজি কমিটিতে সুভাষচন্দ্রের পরিবার থেকে থাকছেন চন্দ্রকুমার বসু-সহ আরও কয়েকজন সদস্য। রয়েছেন আইএনএ বাহিনীর স্বাধীনতা সংগ্রামীরাও।
ওড়িশার কটকে জন্ম হয়েছিল সুভাষচন্দ্র বসুর। তাই ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কও রয়েছেন কেন্দ্রের উচ্চপর্যায়ের কমিটিতে। রাখা হয়েছে উত্তর- পূর্বের বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকেও।
চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি নেতাজির ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীকে সামনে রেখে আগামী বছরের সালের ২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত বিভিন্ন অনুষ্ঠান করবে কেন্দ্র। শুধু ভারতেই নয়, জাপান, রাশিয়া, মায়ানমার ও জার্মানি, যে সব দেশে জীবনের একটা বড় অংশ কাটিয়েছেন নেতাজি, সেখানেও জন্মজয়ন্তীতে স্মরণসভা ও অনুষ্ঠান হবে।

Comments
Loading...