প্রধানমন্ত্রীর ডাকা ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’ শীর্ষক বৈঠকে যাবেন না বলে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

প্রধানমন্ত্রীর ডাকে দিল্লির বৈঠকে যাচ্ছেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে বুধবার দিল্লিতে হতে চলেছে ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’ বিষয়ক বৈঠক। সব রাজনৈতিক দলের সভাপতিকে ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকার আমন্ত্রণ জানিয়ে ছিলেন মোদী। কিন্তু মঙ্গলবার সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীকে চিঠি লিখে মমতা জানিয়ে দেন ‘এক দেশ, এক নির্বাচন’এর মতো একটি স্পর্শকাতর ও গুরুতর বিষয় একটি বৈঠকেই নির্ধারিত হতে পারে না। বিষয়টি নিয়ে সংবিধান ও নির্বাচন বিশেষজ্ঞ এবং সমস্ত দলের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা প্রয়োজন বলে জানান তৃণমূল নেত্রী। চিঠিতে মমতা লেখেন, এই বিষয়ে তাড়াহুড়ো করার পরিবর্তে, তাঁর অনুরোধ, সমস্ত দলের কাছে এই বিষয়ে একটি শ্বেতপত্র দেওয়া হোক। সেখানে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে নিজেদের মতামত প্রকাশ করুক রাজনৈতিক দলের প্রধানরা। তাহলেই এই বিষয়ে নিজেদের মতামত দেবেন তিনি, বলে চিঠিতে জানিয়েছেন মমতা।
এর আগে প্রধানমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যাবেন বলেও, শেষ মুহূর্তে ‘রাজনীতিকরণ’এর অভিযোগে দিল্লি যাত্রা বাতিল করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর মোদী সরকারের ডাকে নীতি আয়োগের বৈঠকেও উপস্থিত হননি তিনি। সেবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে মমতা জানিয়ে ছিলেন, রাজ্যের পরিকল্পনা রূপায়ণে নীতি আয়োগের কোনও অর্থনৈতিক জোর নেই। তাই অযথা এই বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লি যাবেন না তিনি। এবার প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সর্বদল বৈঠকেও যোগ দিচ্ছেন না বলে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

Comments
Loading...