মাসুদ আজহারকে ‘নিরাপদ স্থানে’ সরাল পাক সেনা, ইমরানকে তুলোধোনা জৈশের, খবর প্রকাশ টাইমস অফ ইন্ডিয়ায়

মৃত্যু নিয়ে জল্পনার মধ্যেই এবার জৈশ প্রধান মাসুদ আজহারকে ‘নিরাপদ স্থানে’ সরিয়ে নিয়ে গেল পাকিস্তানের সেনা বাহিনী। সর্বভারতীয় দৈনিক ‘দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া’য় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, রবিবার সন্ধ্যায় মাসুদ আজহারকে রাওয়ালপিন্ডির বেস হসপিটাল থেকে বাহওয়ালপুরের গোথ ঘান্নির জৈশ জঙ্গি শিবিরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে প্রকাশ, জৈশ প্রধানকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই পাক সরকারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক বিবৃতি দেয় জৈশ-ই-মহম্মদ। ভারত ও আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভেঙে পড়েছেন বলেও দাবি করা হয় জৈশের বিবৃতিতে।

প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, বেশ কয়েক মাস ধরে রাওয়ালপিন্ডির এই সামরিক হাসপাতালেই কিডনির সমস্যা নিয়ে ভর্তি আছে মাসুদ আজহার। পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে ভয়াবহ ফিদায়েঁ হামলায় ৪০ জন জওয়ানের মৃত্যুর পর মাসুদ আজহারের নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেয় পাক প্রশাসন। এখন সর্বক্ষণ তাকে ঘিরে রাখে ১০ জন পাকিস্তান স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপের কমান্ডো। এমনটাই ‘টাইমস অফ ইন্ডিয়া’র প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

জৈশের বিবৃতিতে মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবর খারিজ করা হয়েছে পাশাপাশি ভারতীয় বায়ুসেনার হামলার কথাও স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে। তবে তাতে কেউ হতাহত হয়নি বলে দাবি জঙ্গি সংগঠনটির। প্রতিবেদনে প্রকাশ, বিবৃতিতে লেখা হয়েছে, ‘আমাদের লক্ষ্য করে ভারতীয় যুদ্ধ বিমান থেকে ইজরায়েলে নির্মিত মিসাইল ছোড়া হয়েছিল, কিন্তু আল্লাহ তা আটকে দিয়ে আমাদের রক্ষা করেছেন।‘

রবিবার রাতে জারি করা বিবৃতিতে পাকিস্তানের ইমরান সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছে জঙ্গি সংগঠনটি। ৯/১১-র পর পারভেজ মুশারফ যে পন্থা নিয়েছিলেন, ইমরানও সেই পদাঙ্ক অনুসরণ করছেন বলে সমালোচনা করা হয়েছে। ‘টাইমস অফ ইন্ডিয়া’র প্রতিবেদনে প্রকাশিত হয়েছে, ইমরানকে আক্রমণ করে জঙ্গি সংগঠনটির অভিযোগ, প্রথমে ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দিয়ে তারপর আমাদের মত সংগঠনগুলির উপর দমন অভিযান চালিয়ে আসলে ইমরান শত্রু (ভারত)-র প্রতি নরম ও তার নিজেদের লোক (জৈশ)-এর উপর কঠোর মনোভাব গ্রহণ করছেন। পাকিস্তানের দমন অভিযানের পরোয়া না করে জঙ্গি সংগঠনের সদস্যদের নতুন করে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এই জৈশ-ই-মহম্মদের তরফ থেকে।

Comments
Loading...