বাংলায় ব্যস্ত মোদী! অক্সিজেন চেয়ে ঠাকরের ফোনের জবাব প্রধানমন্ত্রীর দফতরের, ট্যুইট রাজদীপ সারদেশাইয়ের

মোদীর অফিস থেকে তাঁকে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী বাংলায় ভোট প্রচারে ব্যস্ত। ফিরে এলে আপনার ফোনের কোথা জানানো হবে

সিনিয়ার সাংবাদিক রাজদীপ সারদেশাইয়ের বিস্ফোরক ট্যুইট। তাঁর দাবি, অক্সিজেন ও রেমডেসিভির চেয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ফোন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। কিন্তু মোদীর অফিস থেকে তাঁকে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী বাংলায় ভোট প্রচারে ব্যস্ত। ফিরে এলে আপনার ফোনের কোথা জানানো হবে। রাজদীপ সারদেশাইয়ের দাবি এই তথ্য তিনি পেয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের অফিস থেকে।

রাজদীপের ট্যুইট করা ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোভিড পরিস্থিতিতে কার্যত বেসামাল মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। দৈনিক ৬০ থেকে ৬৩ হাজার মানুষ করোনা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। যার জেরে হাসপাতাল, নার্সিংহোমগুলিতে রেমডেসিভির ইনজেকশন এবং অক্সিজেনের যোগান তলানিতে। অক্সিজেনের এতটাই অভাব যে রোগীদের হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে সরিয়ে নিয়ে যেতে হচ্ছে। অক্সিজেন সাপ্লাইয়ের জন্য সরকারের তরফে উড়িষ্যা সহ বেশ কিছু রাজ্যের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। শেষে রেমডেসিভির ও অক্সিজেন চেয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের দাবি যোগাযোগ করার পর পিএমও থেকে প্রধানমন্ত্রীর বাংলায় ভোট প্রচারে ব্যস্ত থাকার কথা বলা হয়।

দেশে যখন করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে তখন প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভোট প্রচার করতে ঘন ঘন বাংলায় যাতায়াত ইতিমধ্যেই নেটিজেনদের নজর কেড়েছে। বিজেপির দুই শীর্ষ নেতার বঙ্গ জয়ে এমন উত্তুঙ্গ স্পৃহাকে নিয়ে কটাক্ষ চলছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তা নিয়ে ঘুরছে হাজারো মিম। কিন্তু প্রচারে ফাঁকি নেই বিজেপি শিবিরের দুই মূল সেনাপতির। এই প্রেক্ষিতে সামনে এলো চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। ভোট প্রচারে ব্যস্ত থাকায় মহারাষ্ট্রে অক্সিজেন ও রেমডেসিভির চেয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর ফোন ধরতে পারলেন না দেশের প্রধানমন্ত্রী। যদিও পাল্টা উদ্ধব ঠাকরে সস্তা রাজনীতি করছেন বলে আক্রমণ করেছেন পীযুষ গোয়েল।

Comments
Loading...