দেশের উন্নয়নে বাধা সৃষ্টিকারী আন্দোলনজীবীদের উপড়ে ফেলতে হবে, বললেন নরেন্দ্র মোদী

“আন্দোলনকারীদের সমর্থন করছে বিরোধীরা, এই আন্দোলনকারীরা পরজীবী হয়ে গিয়েছে, এরা দেশের উন্নয়নে বাধার সৃষ্টি করছে”। সোমবার সংসদ ভবন থেকে কৃষকদের এইভাবেই কটাক্ষ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিন তিনি আন্দোলনকারীদের পরজীবী আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, এই পরজীবীদের ছুঁড়ে ফেলতে হবে। আন্দোলনকারী কৃষকদের পাশাপাশি আন্দোলনে সমর্থনকারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দেশের বদল দরকার। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে বদলের প্রয়োজন। কিন্তু সেই অগ্রগতির পথে বাধা হয়ে দাড়াছে বিরোধীরা। ৩ কৃষি বিল নিয়ে বিরোধীদের এইভাবেই সংসদ ভবন থেকে আক্রমণ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

এদিন মোদী ফের কৃষকদের আশ্বস্ত করে জানান, ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের বিষয়ে ভুল বোঝানো হচ্ছে কৃষকদের। ন্যূনতম সহায়ক মূল্য আগেও ছিল, আছে এবং থাকবে। কৃষকদের উন্নয়নের জন্যই কাজ করছে সরকার। কৃষি বিল নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলেও সোমবার সংসদে অভিযোগ তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, নতুন কোনও বিষয় আনার পর তা নিয়ে টানাপড়েন চলে। কিন্তু সেই টানাপোড়েন জিইয়ে রাখালে দেশের অগ্রগতি হয় না।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এদিন বিরোধীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, দেশে বিরোধিতার জন্য অনেক ইস্যু আছে। কিন্তু বিরোধীরা দেশের উন্নয়নে বাধা দিচ্ছে। এতে দেশের মনোবল ভেঙে যায়। বিরোধীরা দেশের ভালো নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন। কিষান নিধি প্রকল্পের কথা তুলেও বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনা করেন মোদী। বলেন,বাংলায় রাজনীতি না হলে ওখানকার কৃষকেরাও এই সুবিধা পেতেন। তিনি বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের অন্য রাজ্যের কৃষকরা উপকৃত হয়েছেন।

সম্প্রতি নোটবন্দি, জিএসটি, কৃষক আন্দোলন, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা হরণ, যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোয় হস্তক্ষেপের মতো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরে রাজ্যসভায় ভাষণ দেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। কৃষক আন্দোলন নিয়ে বিদেশি সেলেব্রিটি টুইট প্রসঙ্গে তিনি ট্রাম্পের হয়ে মোদীর প্রচার ‘হাউডি মোদী’র কথা টেনে আনেন। সোমবার ‘হাউডি মোদী’ নিয়ে ডেরেককে কটাক্ষ করেন মোদী। তিনি বলেন, গণতন্ত্র নিয়ে বিরোধীরা সংসদে অনেক কথা বলছেন। মনে হচ্ছিল যেন বাংলার কথা বলছেন।

Comments
Loading...