দলিতদের বাড়ি গিয়ে ভোজন বিজেপির ‘পাবলিসিটি স্টান্ট’, তীব্র কটাক্ষ ভাগবতের

দলিতদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে শুধু ভোজন করলেই চলবে না, জাতিপ্রথা দূর করতে এটি যথেষ্ট নয়। এই ভাষাতেই এবার বিজেপি নেতাদের সমালোচনা করলেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। সম্প্রতি দিল্লিতে ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি’ নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি সভায় তিনি এই মন্তব্য করেছন। তিনি জানিয়েছেন, দলিতদের ঘরে গিয়ে ভোজন জাতিভেদ প্রথা দূর করার জন্য কোনওভাবেই যথেষ্ট হতে পারে না। পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমের উপস্থিতিতে বিজেপি নেতাদের এই কৌশলকে তিনি ‘পাবলিসিটি স্টান্ট’ বা জনপ্রিয়তা লাভের চেষ্টা বলেও তীব্র কটাক্ষ করেছেন। প্রসঙ্গত, বিজেপির বিভিন্ন স্তরের নেতা তো বটেই, সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জনসংযোগ বাড়াতে দলিত, আদিবাসীদের বাড়িতে গিয়ে খেয়েছেন।
মোহন ভাগবত আরও জানান, যদি সরকার দলিতদের অবস্থার সত্যিই উন্নতি চায়, তবে দলিতদের সঙ্গে নেতাদের পারিবারিক পর্যায়েও আন্তরিকভাবে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতে হবে। কর্ণাটক নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কিছুদিন আগে বিজেপি ‘সমরাস্ত ভোজ’ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। যাকে খাওয়াদাওয়ার মাধ্যমে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠির মধ্যে প্রভাব বিস্তার করাই মূল উদ্দেশ্য বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা ইয়েদুরাপ্পা কিছুদিন আগে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে একটি দলিত পরিবারের ঘরে ভোজন করেছিলেন। এই সপ্তাহের শুরুতেই দলিতের ঘরে নিজের বাড়ির তৈরি খাবার নিয়ে গিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন উত্তর প্রদেশের বিজেপি মন্ত্রী সুরেশ রানা। এই সব কিছুর পরিপ্রেক্ষিতে আরএসএস প্রধান ভাগবতের এই মন্তব্য যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ।

Comments
Loading...