“আমার কন্ঠরোধ করা যাবে না” কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সপাটে জবাব শ্রমজীবী কর্মী নদীপ কৌর

“আমি হয়তো বেশি দিন বাঁচবো না। হয় আমাকে খুন করা হবে অথবা শীঘ্রই আবার জেলে পোরা হবে।” গতকাল কলকাতার বীরেন্দ্র মঞ্চের ‘চতুর্থ লিটারেচার ফেস্টিভ্যাল’ এ কথাগুলি বললেন শ্রমজীবী আন্দোলনকর্মী নদীপ কৌর। কৃষক এবং শ্রমিকদের দাবি বহাল থাকবে এমনটাই চেয়েছিল শ্রমজীবী আন্দোলনকর্মী নদীপ কৌর। কিন্তু বিক্ষোভ আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়ার ১২ জানুয়ারি গ্রেফতার হয় নদীপ। 

শনিবার ‘চতুর্থ পিপলস লিটারেচার ফেস্টিভ্যাল’ এ মঞ্চে দাঁড়িয়ে নদীপ জানায়, ‘আমি হয়তো খুব বেশি দিন বাঁচবো না। হয় আমাকে খুন করা হবে অথবা শীঘ্রই আবার জেলে পোরা হবে। কিন্তু যতদিন বাচবো দলিত, মুসলমান, আদিবাসী, সমাজের অত্যাচারিত অংশের ওপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে আমার লড়াই জারি থাকবে। জেলে ভরে আমার কন্ঠরোধ করা যাবে না।’ নয়াকৃষি আইনের বিরুদ্ধে দিল্লি সীমান্তে আজ আন্দোলনরত বহু মানুষ। আন্দোলনের স্বরূপ তুলে ধরতে বহু গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের মুখ বন্ধ করতে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেই কন্ঠরোধী বার্তাকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে শনিবার কলকাতায় অনুষ্ঠিত চতুর্থ পিপলস লিটারেচার ফেস্টিভেলের আয়োজন করা হয়েছিল।

এই সাহিত্য মেলায় উপস্থিত ছিলেন দিল্লির শ্রমজীবী আন্দোলনকর্মী নদীপ কৌর, পাঞ্জাবের সংস্কৃতি ও শিক্ষা কর্মী জগজিৎ কর, সাংবাদিক রুপেশ কুমার সিং, কবি লেলিন কুমার, শিল্পী রনি সেন ছাড়াও অনেকে।

Comments
Loading...