শুনতে পান না কানে, ঠোঁট পড়ে কথা বোঝেন, এদিকে যাত্রী হয়েও প্লেন উড়ালো তিতলি

কানে শুনতে পায় না। সবার ঠোঁট পড়ে কথা বোঝে। এদিকে সেই মেয়েই নাকি প্লেন ওড়াচ্ছে, ভাবা যায়! এমনটাই দেখা গেল বাংলার ধারাবাহিক ‘তিতলি’ তে। আর এই দেখেই ট্রোল করছেন নেটিজেনরা। এমনই সব অবাস্তব গল্প লেখা হয় আজকালকার বাংলা কিংবা হিন্দি সিরিয়াল গুলিতে। সেদিকে ওয়েব সিরিজ অনেক বেশি রিয়াল। গতানুগতিক ধারার বাইরে গিয়ে তৈরি করা হয় ওয়েব সিরিজের গল্প। অন্যদিকে টেলিভিশন ধারাবাহিকের গল্প বড়ই একঘেয়ে। তাই একাধিক দর্শকদের কাছেই প্রিয় হয়ে উঠছে অনলাইন ওয়েব সিরিজ।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তিতলি ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো। যা বর্তমানে হয়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়া ভাইরাল। প্রোমোটি দেখেই তা নিয়ে ট্রোল করছে নেটিজনতা। তাদের প্রশ্ন “ধারাবাহিকের লেখক কোথাকার গাঁজা খেয়ে গল্প লেখেন?” প্রমোটিতে দেখা যাচ্ছে মুখ্য চরিত্র তিতলি যাত্রী হিসেবে প্রথমবার প্লেনে উঠেছে। আর সেই প্লেনের পাইলটের হার্ট অ্যাটাক আসে হঠাৎ করে। যার ফলে ককপিটে প্লেন উড়ানোর লোক নেই। প্লেনকে মাটিতে ক্রাশ করা থেকে কে বাঁচাবে? তখনি ছুটে আসে তিতলি। সোজা চলে যায় ককপিটে। তারপরই ওড়ালো প্লেন। কেউ পারল না তাকে আটকাতে।

কেবল তিতলি নয়, তিতলির বড়ও চলে যায় ককপিটে। সেখানে ঢুকে হেডফোন পড়ে কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। দুজনে মিলে যাত্রী হয়েও প্লেন ওড়ালো প্রথমবার। আর এই দেখেই চক্ষুচড়কগাছ নেটিজেনদের। কেউই বুঝতে পারছে না এ কেমন ভাবে সম্ভব। নেটদুনিয়ায় ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকের লেখক, নির্মাতা, অভিনেতা, অভিনেত্রী, প্রযোজকদের নিয়ে শুরু হয়েছে ট্রোলিং। এর আগেও বাংলা ধারাবাহিক নিয়ে বহুবার ট্রোল করেছে দর্শকেরা।

Comments
Loading...