স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড ফেরালে লাইসেন্স বাতিল, কড়া  নির্দেশ রাজ্যের 

চিকিৎসা করানো যাবে সব হাসপাতালে

স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে রাজ্যের সব হাসপাতাল নার্সিং হোমে চিকিৎসা করানো যাবে৷ রাজ্য সরকারের তরফে আগেই এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। তারপরেও বেশ কয়েকটি প্রাইভেট হাসপাতাল, নার্সিং হোম রুগী ফেরাচ্ছিলো বলে অভিযোগ আসে। মঙ্গলবার রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয় রাজ্যের কোনো হাসপাতাল, নার্সিং হোম স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ফেরাতে পারবে না। কার্ড ফেরানোর অভিযোগ এলে সংশ্লিষ্ঠ হাসপাতালের লাইসেন্সও বাতিল করা হতে পারে বলে এদিন রাজ্যের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়। 

[আরও পড়ুন- মনোজ TMC প্রার্থী, দিন্দা কোথায়? বঙ্গ ভোটে প্রার্থী নিয়ে চমক সব দলেই]

পশ্চিবঙ্গ সরকারের স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে বিপুল সাড়া  ফেলেছে। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসার এই সুবিধা নিতে দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে বিপুল লোক স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্য আবেদন করেছেন। কিন্তু বেশকিছু প্রাইভেট হাসপাতাল, নার্সিং হোমের দাবি ছিল সরকারের ঠিক করে দেওয়া প্যাকেজে চিকিৎসা করতে তাদের সমস্যা হচ্ছে। প্রাইভেট হাসপাতালগুলির দাবিদাওয়া নিয়ে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন ব্যানার্জি কয়েকবার কর্পোরেট হাসপাতালগুলির সঙ্গে আলোচনা করেন। হাসপাতালগুলির দাবি মেনে রাজ্য সরকারের তরফে স্বাস্থ্যসাথীর প্যাকেজ বাড়ানো হয়। তারপরেও কয়েকটি জায়গা থেকে রুগী ফেরানোর অভিযোগ আসছিলো। যার জেরে মঙ্গলবার রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের তরফে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয় রাজ্যের প্রাইভেট হাসপাতাল ও নার্সিংহোম গুলিকে। 

রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা অজয় চক্রবর্তী বলেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলির সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। অধিকাংশ হাসপাতালকে স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় আনা হয়েছে, কয়েকদিনের মধ্যে রাজ্যের সব হাসপাতাল, নার্সিংহোম গুলিকে স্বাস্থ্যসাথীর তালিকাভুক্ত করা হবে।   চিকিৎসা করানো যাবে সব হাসপাতালে।           

         

Comments
Loading...