রামমন্দির নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন আমলা নৃপেন্দ্র মিশ্র

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রাক্তন প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি নৃপেন্দ্র মিশ্র গুরুত্বপূর্ণ পদ পেলেন নবগঠিত রাম মন্দির ট্রাস্টে।
বুধবার রাম মন্দির নির্মাণের জন্য গঠিত শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের প্রথম বৈঠক হয়। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, মন্দির নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান হলেন নৃপেন্দ্র মিশ্র। তিনি ১৯৬৭ সালের ব্যাচের ইউপি ক্যাডারের আইএএস অফিসার। ট্রাস্টের সভাপতি করা হয়েছে বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত নৃত্য গোপাল দাসকে। ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের চম্পত রাই।
সুপ্রিম কোর্টের বর্ষীয়ান আইনজীবী কে পরাশরনের বাড়িতে ট্রাস্টের প্রথম বৈঠকটি হয়। বৈঠক শেষে ট্রাস্টের সভাপতি নৃত্য গোপাল দাস বলেন, রামমন্দির নিয়ে মানুষের যে আবেগ রয়েছে তাকে সম্মান দেওয়া হবে। দ্রুত শুরু হবে মন্দির নির্মাণের কাজ। তিনি জানিয়েছেন, ট্রাস্টের কোষাধ্যক্ষ করা হয়েছে গোবিন্দদেব গিরিকে। বিজেপির সভাপতি জে পি নাড্ডা ট্যুইট করে ট্রাস্টের কর্মকর্তাদের অভিনন্দন জানান।
গত ৫ ফেব্রুয়ারি সংসদে রামমন্দির ট্রাস্টের কথা ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গত ১৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্ট অযোধ্যা মামলার রায়ে বলেছিল, কেন্দ্রীয় সরকারকে তিন মাসের মধ্যে রামমন্দির নির্মাণের জন্য একটি টাস্ট গঠন করতে হবে।
ট্রাস্টের প্রথম বৈঠকে আরও ঠিক হয়েছে, অযোধ্যার স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ব্রাঞ্চে একটি অ্যাকাউন্ট খোলা হবে। সেখানেই রামমন্দির নির্মাণের জন্য টাকা রাখা হবে। পেজাবর স্বামী নামে এক সাধু প্রথম পাঁচ লক্ষ টাকা কোষাধ্যক্ষের হাতে তুলে দেন। বৈঠকে কেন্দ্রীয় সরকারের কয়েকজন শীর্ষ আমলাও হাজির ছিলেন।
যদিও এই ট্রাস্ট নিয়ে এদিন কেন্দ্রীয় সরকারকে খোঁচা দিয়েছেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, রামমন্দির নির্মাণের জন্য ট্রাস্ট গঠন করা হলে মসজিদ নির্মাণের জন্য কেন হবে না?

Comments
Loading...