রাশিয়া বিশ্বকাপে সবচেয়ে বয়স্ক ফুটবলার মিশরের ৪৫ বছরের গোলকিপার এসাম হায়দারি

৪৫ বছর বয়সে জীবনে প্রথম বিশ্বকাপ। আর মাঠে নামার আগেই বিশ্ব রেকর্ড। তিনি মিশরের গোলকিপার তথা অধিনায়ক এসাম আল হায়দারি। এখনও পর্যন্ত ফিফা বিশ্বকাপের ইতিহাসে সব থেকে বয়স্ক খেলোয়াড়। বর্তমানে হায়দারির বয়স ৪৫ বছর। রাশিয়াতে হায়দারির প্রথম বিশ্বকাপ অভিষেক হতে চলেছে। মাত্র ২০ বছর বয়সে ১৯৯৩ সালে প্রথম পেশাদারি ফুটবলে আত্মপ্রকাশ হায়দারির। এরপর মিশরের একাধিক প্রথম সারির ক্লাবের হয়ে খেলেছেন তিনি। ইউরোপের সুইৎজারল্যান্ডের সিয়ন ক্লাবের হয়েও খেলেছেন। দীর্ঘ ২৫ বছরের ফুটবল কেরিয়ারে তিনি এশিয়া, আফ্রিকা এবং ইউরোপের মোট ১১ টি ক্লাবের হয়ে খেলেছেন। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হায়দারি জানান, ‘বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়ে তিনি গর্বিত ও আনন্দিত। প্রত্যেককেই তাঁর নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে, তাহলেই স্বপ্নপূরণ সম্ভব’।
হায়দারির পরেই এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে বয়স্ক ফুটবলার মেক্সিকোর রাফায়েল মার্কুইজ। ১৯৯৭ সাল থেকে প্রায় ২০ বছরের বেশি সময় জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন ৩৯ বছর বয়সী এই মেক্সিকান মিডফিল্ডার। এছাড়াও রাশিয়া বিশ্বকাপে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার টিম কাহিল। ৩৮ বছর বয়সী এই অজি স্ট্রাইকারের কথায়, ‘বিশ্বকাপে খেলার অনুভূতিটাই আলাদা। বিশ্বকাপে আমাদের বেশ কিছু সুন্দর মুহূর্ত রয়েছে। রাশিয়াতেও নিজেদের সেরাটাই দিতে চাই আমরা’। এছাড়াও বয়স্ক খেলোয়াড়ের তালিকায় রয়েছেন আইসল্যান্ডের ওলাফুর ইঙ্গি স্কালসন (৩৫), কোস্টারিকার প্যাট্রিক পিম্বারটন (৩৫) এবং আর্জেন্টিনার বছর ৩৫ এর গোলকিপার উইলি ক্যাবেলরো। ক্যাবেলরোর কথায়, ‘রাশিয়া বিশ্বকাপে অভাবনীয় কোনও বিপর্যয় না ঘটলে আর্জেন্টিনাই হবে এক নম্বর’।

Comments
Loading...