গত সপ্তাহেই কেজি প্রতি একশো টাকা ছাড়িয়েছে পেঁয়াজের দাম। পেঁয়াজের দামের ঝাঁজ থেকে মানুষকে রেহাই দিতে চলতি সপ্তাহ থেকে রেশনে পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে। আপাতত উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার রেশন দোকানগুলিতে চাল, গম, চিনির সঙ্গে পেঁয়াজ বিক্রিরও পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে তৃণমূল সরকার। কলকাতার দুই প্রান্তের প্রায় ন’শোটি রেশন দোকান থেকে কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি হবে। গণবণ্টন দফতর এই পেঁয়াজ কিনছে কৃষি বিপণন দফতর থেকে। কিছুদিনের মধ্যে রাজ্যের সর্বত্র রেশনে পেঁয়াজ মিলবে বলে খাদ্য দফতর সূত্রে খবর।
প্রশ্ন উঠছে, রেশন তো কেবলমাত্র গরিব মানুষরা পান, সরকারের এই সিদ্ধান্তে মধ্যবিত্তরা কতটা উপকৃত হবেন? সরকার পক্ষের ব্যাখ্যা, কম সংখ্যক কিছু মানুষকেও যদি কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করা যায় তাতে বাজারমূল্য কিছুটা হলেও কমবে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে রাজ্যের সর্বত্র রেশনে পেঁয়াজ দেওয়া হলে চাহিদা ও যোগানের ফারাক আরও পড়বে।
তাছাড়া, পেঁয়াজের দাম লাগামছাড়া হওয়ার পর থেকে ‘সুফল বাংলা’র স্টল থেকে ৫৯ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনতে পারছেন মধ্যবিত্তরা। এতে অন্তত কিছুটা হলেও মধ্যবিত্তরা নিস্তার পাবেন বলে দাবি খাদ্য দফতরের। এবার সেঞ্চুরি পার করা পেঁয়াজের দাম থেকে গরিব মানুষকে রেহাই দিতে রেশনের মাধ্যমে তা বিক্রির কথা ভেবেছে রাজ্য সরকার। যতদিন না পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত এই রেশন ব্যবস্থা চালু থাকবে। গণবন্টন দফতরের প্রধান সচিব মনোজ আগরওয়াল জানান, প্রথম দফায় উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার প্রায় ৯৩৪ টি রেশন দোকান থেকে সুবিধাজনক দামে পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Pre Monsoon Rain To Continue
Mamata Attacks Opposition