দুর্ঘটনায় মৃত্যু আড়াই বছরের সন্তানের, বাবা-মা ছেলের অঙ্গদান করে ৭ শিশুকে বাঁচালেন

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছে একমাত্র সন্তান যশকে। সন্তান চলে গিয়েছে কিন্তু সেই সন্তানের অঙ্গে বেঁচে উঠছে ৭ শিশু। যশকে হারিয়ে যশের অঙ্গে বেঁচে ওঠা ৭ শিশুকেই এখন সন্তানরূপে দেখছেন সদ্য সন্তানহারা সুরাতের দম্পতি।

৯ ডিসেম্বর পড়ে গিয়ে মারাত্মক আঘাত পায় আড়াই বছরের যশ। ৫ দিন ধরে লড়াই করেও বাঁচানো যায়নি ছোট্ট যশকে। ১৪ ডিসেম্বর ব্রেইন ডেথ হয় তাঁর। সন্তান হারানোর শোকে আকুল মা-বাবার পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন এক সেচ্ছাসেবী সংস্থার কর্মী নীলেশ। তিনিই যশের মা-বাবাকে রাজি করান অঙ্গদানের ব্যাপারে। সম্মতি দেন তাঁরা। সুরাত থেকে গ্রিন চ্যানেলের মাধ্যমে মাত্র ২ ঘণ্টার মধ্যে যশের অঙ্গ আনা হয় চেন্নাইয়ের এমজিএম হাসপাতালে। শুরু হয় প্রতিস্থাপন। 

শেষ পর্যন্ত যশের অঙ্গেই বেঁচে উঠছে ৭ টি শিশু। তাদের মধ্যে রয়েছে এক রাশিয়ান এবং এক ইউক্রেনের শিশু। দুজনেই দীর্ঘদিন ধরে চেন্নাইয়ের হাসপাতালে ভর্তি। এবার যশের অঙ্গ নিয়ে বাড়ি ফিরবে তারা। 

যশের কিডনি পাচ্ছে ১৩ ও ১৭ বছরের দুই নাবালিকা, লিভার পাবে বছর দুয়েকের এক শিশু। আপাতত যশের চোখের কর্নিয়া আই ব্যাঙ্কে রাখা হয়েছে। কারও প্রয়োজন হলে তা ব্যবহার হবে। সবমিলিয়ে যশের অঙ্গে বেচে উঠছে ৭ টি শিশু। 

যশ নেই। কিন্তু সন্তান হারা মা-বাবার একটাই সান্ত্বনা, ওই ৭ শিশুর মধ্যেই বেঁচে আছে তাঁদের আদরের যশ। 

Comments
Loading...